ঢাকা, সোমবার, ১৪ জুন ২০২১, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮ আপডেট : ৬ মিনিট আগে

প্রকাশ : ১২ মে ২০২১, ১১:১১

প্রিন্ট

চট্টগ্রামে করোনায় আরো ৫ জনের মৃত্যু

চট্টগ্রামে করোনায় আরো ৫ জনের মৃত্যু
ছবি: সংগৃহীত

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি

চট্টগ্রামে গত ২৪ ঘণ্টায় ৮৬৫ জনের নমুনা পরীক্ষা করে করোনাভাইরাসে সংক্রমিত শনাক্ত হয়েছেন ১০৯ জন। নতুন শনাক্তদের মধ্যে ৮২ জন নগরের ও ২৭ জন উপজেলার বাসিন্দা। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রাম নগরে ৩ জন ও উপজেলা পর্যায়ে ২ জন করোনায় মারা গেছেন। এখন পর্যন্ত করোনায় মারা গেছেন মোট ৫৭৩ জন।

বুধবার সকালে চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে প্রকাশিত প্রতিবেদনে এই তথ্য জানা গেছে।

প্রতিবেদনে আরো জানা যায়, চট্টগ্রামে এ পর্যন্ত শনাক্ত হয়েছেন ৫১ হাজার ৪৯৯ জন। তার মধ্যে ৪১ হাজার ২০৫ জন নগরের ও ১০ হাজার ২৯৪ জন উপজেলা পর্যায়ের বাসিন্দা। এছাড়া এখন পর্যন্ত করোনায় মারা গেছেন মোট ৫৭৩ জন। এর মধ্যে ৪২৪ জন নগরের ও ১৪৯ জন উপজেলার বাসিন্দা।

প্রতিবেদনে বলা হয়, গতকাল মঙ্গলবার চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ৮০ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১৮ জনের ও ফৌজদারহাটের বিআইটিআইডিতে ৩৫০ জনের নমুনা পরীক্ষায় ২৮ জনের দেহে করোনার জীবাণু পাওয়া গেছে। চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে ৭৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১৭ জনের করোনা পাওয়া গেছে।

শেভরণে ২৭৩ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১৭ জনের ও আগ্রাবাদের মা ও শিশু হাসপাতালে ১৬ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। আরটিআরএলে ৫০ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১৯ জনের ও মেডিকেল সেন্টার হাসপাতালে ১৭ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৫ জনের করোনা ধরা পড়েছে।

এদিকে চট্টগ্রামে তুলনামূলক বেশি সংখ্যায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছেন ডায়াবেটিস ও উচ্চ রক্তচাপের রোগীরা। চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসকদের করা এক গবেষণায় এই তথ্য উঠে এসেছে।

গত ৬ মাস ধরে মোট ১ হাজার ৫৩০ জন ব্যক্তির নমুনা সংগ্রহ করে এই গবেষণাটি সম্পন্ন করেন চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসকরা। হাসপাতালটির সিনিয়র কনসালটেন্ট ডা. আব্দুর রবের নেতৃত্বে এই গবেষণাটি পরিচালিত হয়।

২০২০ সালের অক্টোবর থেকে ২০২১ সালের এপ্রিল মাস পর্যন্ত ৬ মাস ধরে দৈবচয়নের ভিত্তিতে ১ হাজার ৫৩০ জনের এন্টিবডি পরীক্ষা করে এই গবেষণাটি সম্পন্ন করেন তারা। চট্টগ্রামে আরটি পিসিআর টেস্টে করোনা নেগেটিভ হওয়া ২৬ শতাংশ রোগীর শরীরে করোনার এন্টিবডি তৈরি হয়েছে বলে উঠে এসেছে এই গবেষণায়। পজিটিভ হওয়া রোগীদের মধ্যে যার পরিমাণ ৮৮ শতাংশ। যে ১ হাজার ৫৩০ জনের নমুনাকে ঘিরে এই গবেষণা তার মধ্যে ৯৪১ জন করোনা পজিটিভ শনাক্ত হওয়া ব্যক্তি ও ৫৮৯ জন করোনা নেগেটিভ হওয়া ব্যক্তি রয়েছেন।

ডা. আব্দুর রব চট্টগ্রাম বলেন, আমাদের গবেষণায় পাওয়া তথ্য অনুযায়ী আক্রান্তদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ২৩ শতাংশ হচ্ছেন উচ্চ রক্তচাপের রোগী। এরপর সবচেয়ে বেশি সংক্রমিত হচ্ছেন ডায়াবেটিস রোগীরা। আক্রান্তদের প্রায় ১৬ শতাংশের শরীরে আগে থেকেই ডায়াবেটিস ছিলো। শ্বাসকষ্টের সমস্যা যাদের আগে থেকেই আছে, তাদের মধ্যে করোনায় সংক্রমিত হওয়ার হার ৯ শতাংশ।

বাংলাদেশ জার্নাল/এনকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত