ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ০৫ আগস্ট ২০২১, ২১ শ্রাবণ ১৪২৮ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে

স্ত্রীসহ পিডিবির সাবেক প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

  চট্টগ্রাম প্রতিনিধি

প্রকাশ : ১৩ জুন ২০২১, ২২:২৩

স্ত্রীসহ পিডিবির সাবেক প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে দুদকের মামলা
ছবি: সংগৃহীত

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি

জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (পিডিবি) চট্টগ্রামের সাবেক প্রধান প্রকৌশলী এসএমএ আজিম ও তার স্ত্রী মোছাম্মদ নবতারা নুপুরের বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

রোববার চার কোটি টাকার জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে দুদকের ঢাকা-১ এর সমন্বিত জেলা কার্যালয়ে তাদের বিরুদ্ধে মামলা করেন দুদকের উপপরিচালক মো. হাফিজুল ইসলাম।

সম্পদ বিবরণী দাখিলের পর ঢাকা ও চট্টগ্রামের যৌথ দুদকের টিম অনুসন্ধানে দুর্নীতির মাধ্যমে সম্পদ অর্জনের তথ্য-প্রমাণ পেয়ে মামলাটি দায়ের করা হয়। দুদক চট্টগ্রাম জেলা সমন্বিত কার্যালয়ের পরিচালক মাহমুদুল হাসান ঢাকায় পিডিবির এক কর্মকর্তা ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

অভিযুক্ত এসএমএ আজিম বর্তমানে বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের (পিডিবি) প্রধান কার্যালয়ের পরিচালক (পুর্তকর্ম) পদে আছেন। এর আগে তিনি চট্টগ্রামে পিডিবির তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তারা চট্টগ্রাম নগরীর বন্দর থানার উত্তর মধ্যম হালিশহর ওয়ার্ডের মুনির নগরে রশিদা ম্যানশনের বাসিন্দা।

দুদক চট্টগ্রামের এক কর্মকর্তা জানান, চট্টগ্রামে তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী থাকার সময় জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জন করে নিজেকে আড়াল করার জন্য স্ত্রীর নামে স্থাবর-অস্থাবর সম্পদ গড়েছেন এবং ছদ্মবেশে স্ত্রীর নামে বিনিয়োগ করেছেন এসএমএ আজিম। মামলায় তাদের বিরুদ্ধে জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জন, দখল ও গোপন করার অপরাধে দুদক আইন এবং মানিলন্ডারিং প্রতিরোধ আইনে আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে।

দুদক সূত্রে জানা যায়, মামলার প্রধান আসামি প্রকৌশলী আজিমের স্ত্রী নবতারা নুপুর ৬৫ লাখ ৬৬ হাজার ৭৪৩ টাকা মূল্যের স্থাবর সম্পদ ও ২৮ লাখ ৬১ হাজার ৪২৯ টাকা মূল্যের অস্থাবর সম্পদসহ মোট ৯৪ লাখ ২৮ হাজার ১৭২ টাকা মূল্যের স্থাবর ও অস্থাবর সম্পদ গোপন করে দুর্নীতি দমন কমিশন আইন ২০০৪ এর ২৬ (২) ধারায় শাস্তিযোগ্য অপরাধ করেছেন। এছাড়া অপর আসামি আজিম চট্টগ্রামে চাকরিকালীন সময়ে দুর্নীতির মাধ্যমে অবৈধভাবে উপার্জিত সম্পদ আড়াল করার জন্য স্ত্রী নবতারা নুপুরের নামে ৩ কোটি ৮৪ লাখ ৭৪ হাজার ৬০৭ টাকা মূল্যের জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনে সহায়তা করা এবং স্ত্রীর নামীয় বিভিন্ন স্থাবর সম্পদ ও অস্থাবর সম্পদে ছদ্মবেশে বিনিযোগের মাধ্যমে রুপান্তর বা হস্তান্তর করে দুর্নীতি দমন কমিশন আইন ২০০৪ এর ২৭ (১) ধারায় এবং মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইনের ২০১২ এর ৪ (২) ও দ.বি. ১০৯ ধারায় শাস্তিযোগ্য অপরাধ করেছেন।

দুদক সূত্রে আরও জানা যায়, নবতারা নুপুরের নামে ৩ কোটি ৯৯ লাখ ৩৯ হাজার ৭৪৩ টাকা মূল্যের স্থাবর সম্পদ ও ৭৫ লাখ ৭৪ হাজার ১০৮ টাকা মূল্যের অস্থাবর সম্পদ অর্জনের সাক্ষ্য-প্রমাণ পাওয়া যায়। নবতারা নুপুর উত্তর-মধ্য হালিশহরে ক্রয়কৃত জমির উপর নির্মিত ৬ তলা ভবন সংক্রান্তে ৬৫ লাখ ৬৬ হাজার ৭৪৩ মূল্যের স্থাবর সম্পদ গোপন করার এবং আসবাবপত্র বাবদ ৫০ হাজার ১৫০ টাকা, ইলেকট্রনিক্স বাবদ ১২ লাখ ৩১ হাজার ৬২৭ টাকা। ডাচ বাংলা ব্যাংক লিমিটেড হালিশহর শাখার হিসাব নং ১৬৫.১৫১.৫৭৬৮৩ সংক্রান্তে ১৫ লাখ ৭৯ হাজার ৩০৭ টাকা এবং আইএফআইসি ব্যাংক লিমিটেডের হিসাব নং ২০৩০৫০৫৩৮৮০৩৫ সংক্রান্তে ৩৪৫ টাকাসহ মোট ২৮ লাখ ৬১ হাজার ৪২৯ টাকা মূল্যের অস্থাবর সম্পদ গোপন করার তথ্য পাওয়া যায়।

আসামি নবতারা নুপুর ৬৫ লাখ ৬৬ হাজার ৭৪৩ টাকা মূল্যের স্থাবর সম্পদ ও ২৮ লাখ ৬১ হাজার ৪২৯ টাকা মূল্যের অস্থাবর সম্পদসহ মোট ৯৪ লাখ ২৮ হাজার ১৭২ টাকা মূল্যের অস্থাবর সম্পাদন গোপন করে দুর্নীতি দমন কমিশন আইন ২০০৪ এর ২৬(২) ধারায় শাস্তিযোগ্য অপরাধ করেছেন। নবতারা নুপুরের নামে মোট ৩ কোটি ৯৯ লাখ ৩৯ হাজার ৭৪৩ টাকা মূল্যের স্থাবর সম্পদ ও ৭৫ লাখ ৭৪ হাজার ১০৮ টাকা মূল্যের অস্থাবর সম্পদসহ মোট ৪ কোটি ৭৫ লাখ ১৩ হাজার ৮৫১ টাকা মূল্যের স্থাবর ও অস্থাবর সম্পদ এর সাক্ষ্য প্রমাণ পাওয়া যায়।

আরও পড়ুন- সাবেক মন্ত্রীপুত্রের বাড়ির ২২ অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন

বাংলাদেশ জার্নাল/আর

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত