ঢাকা, শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৩ আশ্বিন ১৪২৮ আপডেট : ২৭ মিনিট আগে

লাগামহীন বক্তব্যে বিভ্রান্তি

  নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশ : ০৪ আগস্ট ২০২১, ২০:০৮  
আপডেট :
 ০৪ আগস্ট ২০২১, ২০:২১

লাগামহীন বক্তব্যে বিভ্রান্তি
ফাইল ফটো
নিজস্ব প্রতিবেদক

বৈশ্বিক করোনা মহামারি রোধে বিধিনিষেধ ও টিকা নিয়ে সরকারের মন্ত্রী, কোভিড-১৯ সংক্রান্ত জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটি ও সচিবদের লাগামহীন বক্তব্যে বিভ্রান্তি দেখা দিয়েছে। কারণ করোনা রোধে বিধিনিষেধ ও টিকা নিয়ে কারো বক্তব্যে সমন্বয় নেই। এর মধ্যে মঙ্গলবার মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হকের বক্তব্যের পর সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ে সমন্বয়হীনতা ও দায়িত্বহীনতা আরও প্রকট হয়ে উঠেছে।

গতকাল মন্ত্রী বলেছেন, আগামী ১১ আগস্ট থেকে টিকা নেয়া ছাড়া ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে কেউ বাইরে বের হতে পারবে না। তার এই বক্তব্যের পর ব্যাপক আলোচনা ও বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছিল। যদিও একদিন পরেই সেই বক্তব্য প্রত্যাহার করে নিয়েছেন মন্ত্রী। অন্যদিকে ওইদিনই স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে বলা হয়, এ ধরনের কোন সিদ্ধান্ত বা প্রস্তাবনা স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে কোথাও দেয়া বা নেয়া হয়নি।

দেশে করোনার শুরু থেকে কোভিড-১৯ সংক্রান্ত জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটি বিধিনিষেধ নিয়ে বলেন এক কথা, মন্ত্রীরা বলেন আরেক কথা এবং সচিবরা বলেন অন্য আরেক কথা। মূলত তাদের বক্তব্য ও তথ্য জানার ক্ষেত্রে চরম সমন্বয়হীনতা লক্ষ করা গেছে।

মঙ্গলবার করোনা পরিস্থিতি পর্যালোচনা এবং পরবর্তী করণীয় নিয়ে সচিবালয়ে উচ্চ পর্যায়ের বৈঠকে করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে চলমান বিধিনিষেধ আরও ৫ দিন বাড়িয়ে ১০ আগস্ট পর্যন্ত করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

বৈঠকে শেষে মোজাম্মেল হক বলেছিলেন, আগামী ১১ আগস্ট থেকে ১৮ বছরের উপরের কোনো মানুষ টিকা ছাড়া মুভমেন্ট করলে সেটিকে শাস্তিযোগ্য অপরাধ হিসাবে গণ্য হবে। সেজন্য তাদের বৈঠকে একটি অধ্যাদেশ জারির সিদ্ধান্ত নেয়ার কথাও তুলে ধরেছিলেন মন্ত্রী।

এরপর আজ মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে মন্ত্রী তার বক্তব্য প্রত্যাহার করে নেন। কিন্তু তিনি বক্তব্য প্রত্যাহারের কারণ সম্পর্কে কিছু বলেননি।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে সকল নাগরিককেই পর্যায়ক্রমে টিকার আওতায় নিয়ে আসা হবে। তবে টিকা নেয়া ছাড়া ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে কেউ ১১ আগস্টের পর হতে বাইরে বের হতে পারবেন না- মর্মে বিভিন্ন গণমাধ্যমে মন্ত্রীর যে বক্তব্য প্রচার হচ্ছে, বক্তব্যের সে অংশটুকু প্রত্যাহার করেছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক।

তবে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে বলা হয়েছে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রীর বক্তব্যের সাথে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় একমত নয়। আজ স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা মো. মাইদুল ইসলাম প্রধান স্বাক্ষরিত গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিবৃতিতে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, ১৮ বছরের ঊর্দ্ধে টিকা নেয়া ছাড়া কেউ ঘরের বাইরে বের হতে পারবে না-এরকম কোন প্রস্তাবনা কোথাও দেয়া হয়নি।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ১৮ বছরের ঊর্দ্ধে কেউ বাইরে যেতে পারবে না বলে যে সংবাদটি প্রচার হচ্ছে তা স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের নয়। মূলত ১৮ বছরের ঊর্দ্ধে কেউ টিকা নেয়া ছাড়া ঘরের বাইরে কেউ যেতে পারবে না- এ ধরণের কোনো সিদ্ধান্ত বা প্রস্তাবনা স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে কোথাও দেয়া হয়নি।

জাহিদ মালেক বলেন, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় স্পষ্ঠভাবে জানিয়ে দিতে চায়, বিভিন্ন মাধ্যমে প্রচারিত ১৮ বছরের উর্ধ্বে টিকা নেয়া ছাড়া কেউ বাইরে বের হতে পারবে না বা এই সংশ্লিষ্ট সংবাদের সাথে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণায়ের কোন সম্পর্ক নেই। আর ১৮ বছরের ঊর্দ্ধে টিকা নেয়া ছাড়া কেউ বাইরে বের হতে পারবে না- এরকম কোনো সিদ্ধান্ত গতকালের বৈঠকে নেয়া হয়নি।

এ বিষয়ে তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেন, মঙ্গলবার আন্তঃমন্ত্রণালয় বৈঠকে বেশিরভাগই অনলাইনে সংযুক্ত ছিলেন, আমি অনলাইনে সংযুক্ত ছিলাম। সেখানে আসলে এ ধরনের কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। সরকারের এ ধরনের সিদ্ধান্ত হয়নি যে, ১৮ বছরের বেশি বয়সের কেউ (টিকা না নিয়ে) বের হলে শাস্তিযোগ্য অপরাধ হবে।

বাংলাদেশ জার্নাল/কেএস/ওয়াইএ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত