তিন বাড়ি থেকে তিনটি অজগর উদ্ধার

প্রকাশ : ০৮ অক্টোবর ২০২১, ১৯:৪০ | অনলাইন সংস্করণ

  সিলেট প্রতিনিধি

ছবি: সংগৃহীত

সিলেট নগরীর মেজরটিলা, আলুরতল ও বালুচর এলাকা থেকে তিনটি অজগর সাপ উদ্ধার করা হয়েছে।

শুক্রবার সিলেট বিভাগীয় বন কর্মকর্তা এসএম সাজ্জাদ হোসেন জানান, বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১১টা থেকে শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টার মধ্যে মেজরটিলা, আলুরতল ও বালুচর এলাকার তিনটি বাড়ি থেকে অজগরগুলো উদ্ধার করা হয়েছে।

এর মধ্যে মেজরটিলার একই বাড়ি থেকে কয়েকদিন আগে পরপর দুই দিন দুইটি অজগর উদ্ধার করা হয়।  

তিনি জানান, যেসব বাড়ি থেকে অজগর উদ্ধার করা হয়েছে এ তিনটি বাড়িরই অবস্থান টিলাগড় ইকোপার্কের পাশে। আশপাশে রয়েছে অনেকগুলো টিলা ও বন।

সিলেট অঞ্চলে প্রচুর অজগর সাপ রয়েছে। বিশেষত এখানকার চা বাগানগুলো অজগরের নিরাপদ আশ্রয় বলে সাজ্জাদ হোসেন জানান।

ঈদানীং অজগরের লোকালয়ে চলে আসার প্রবণতা বেড়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, “এখন প্রায়ই মানুষ ফোন করে অজগর পাওয়ার কথা জানায়। পরে আমরা উদ্ধার করে নিয়ে আসি। তাদের আতঙ্কিত না হবার পরামর্শ দিয়েছি।”

অজগর বাড়িতে ঢুকে পড়লেও আতঙ্কিত না হয়ে সাপ হত্যা না করে বনবিভাগকে খবর দেয়ার আহ্বান জানান সাজ্জাদ হোসেন।

শুক্রবার সকালে মেজরটিলার রাবেয়া বেগমের বাড়ি থেকে একটি অজগর সাপ উদ্ধার করা হয়। এর আগে গত ১ ও ২ অক্টোবর একই বাড়ি থেকে আরও দুটি অজগর উদ্ধার করা হয়। আগের দুটি রাবেয়া বেগমের ঘর থেকে উদ্ধার করা হলেও শুক্রবার সকালের সাপটি রাবেয়ার দেবরের মুরগির খামার থেকে উদ্ধার হয়।

রাবেয়া বেগম বলেন, “সকালে মুরগির খামারে সাপ দেখতে পেয়ে আমার জা আমাকে ডেকে আনেন। ঘনঘন ঘরে সাপ প্রবেশ করায় আমরা এতে অভ্যস্ত হয়ে পড়েছি। ফলে আতঙ্কিত না হয়ে আমরা বন বিভাগের কর্মী ও পরিবেশ কর্মীদের খবর দেই। তারা এসে সাপটি উদ্ধার করে নিয়ে যান।”

স্থানীয় পরিবেশবাদী সংগঠন ‘ভূমিসন্তান বাংলাদেশ’-এর সমন্বয়ক আশরাফুল কবির বলেন, বনের ভেতরে অজগরের খাবার কমে এসেছে। অনেক ক্ষেত্রে বনই ধ্বংস করে ফেলা হচ্ছে। ফলে খাবারের জন্য এগুলো লোকালয়ে চলে আসে।

বাংলাদেশ জার্নাল/ওএফ