ঢাকা, রোববার, ০৩ জুলাই ২০২২, ১৯ আষাঢ় ১৪২৯ আপডেট : ৩ মিনিট আগে

ভারতে নিয়ে স্ত্রীকে হত্যা, আদালতে স্বামীর স্বীকরোক্তি

  যশোর প্রতিনিধি

প্রকাশ : ১২ মে ২০২২, ১৯:৩১

ভারতে নিয়ে স্ত্রীকে হত্যা, আদালতে স্বামীর স্বীকরোক্তি
ছবি: প্রতিনিধি
যশোর প্রতিনিধি

যশোরে স্বামীর বিরুদ্ধে সালমা খাতুন (২৪) নামে এক নারীকে ভারতে নিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় স্বামী সহিদুলকে গ্রেপ্তার করেছে ডিবি।

বৃহস্পতিবার আটক সহিদুল ইসলাম স্ত্রীকে হত্যার কথা স্বীকার করেন। যশোর পুলিশের মুখপাত্র ডিবি পুলিশের ইনচার্জ ইন্সপেক্টর রুপন কুমার সরকার বিষয়টি সাংবাদিকদের কাছে নিশ্চিত করেন।

এক বিজ্ঞপ্তিতে তিনি জানান, গত ১৫ এপ্রিল যশোর সদরের বানিয়ারগাতী গ্রামের ইউনুস আলীর ছেলে কামরুল তার স্ত্রী সালমাকে ফুসলিয়ে ভারতে নিয়ে যায়। এরপর চলতি মাসের ৮ তারিখে কামরুল একা দেশে ফিরে আসেন। সালমার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি তার পরিবারের সাথে খারাপ আচরণ করেন এবং বাড়ি থেকে বের করে দেয়।

এরপর ভারতে সালমার ব্যবহৃত মোবাইল ফোন বন্ধ পেয়ে তার বাবা সহিদুল ইসলাম ১১ মে কোতয়ালি থানায় মানবপাচার প্রতিরোধ ও দমন আইনে মামলা করেন।

পুলিশ জানায়, মামলার পর পুলিশ তদন্ত করে জানতে পারে সালমাকে ভারতের গুজরাট রাজ্যের আনান্ধ এলাকায় নিয়ে যায় স্বামী। সেখানে বিক্রির চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে কামরুল তাকে মারধর ও শ্বাসরোধে হত্যার পর দেশে ফিরে আসে।

ইন্সপেক্টর রুপন কুমার সরকার জানান, গত বুধবার রাত ১২টার দিকে এসআই মফিজুল ইসলামের নেতৃত্বে একটি টিম কামরুলকে আটক ও তার তিনটি পাসপোর্ট, নিহতের পাসপোর্ট ও মোবাইল ফোন উদ্ধার করেন। আটক কামরুল পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে বিষয়টি স্বীকার করেছেন।

পরে জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মঞ্জুরুল ইসলামের আদালতে আজ বৃহস্পতিবার আটক সহিদুল ইসলাম স্ত্রীকে হত্যার কথা স্বীকার করেন। তিনি আদালতজে জানান, এর আগেও তারা বেশ কয়েকবার ভারতের গুজরাটে যান। সেখানে একটি বাড়িতে তারা ভাড়া থাকতেন। ওই বাড়ির পাশের একটি ছেলের সাথে সালমা খাতুনের প্রেমের সম্পর্ক তৈরি হয়। শেষবার যাওয়ার সময় তার স্ত্রী সালমা ও তার প্রেমিক ষড়যন্ত্র করে যে- সহিদুলকে মারপিট করে বাংলাদেশে পাঠানো হবে। বিষয়টি জানতে পারেন তিনি। এই নিয়ে স্ত্রীর সাথে সহিদুলের বিরোধ হয়। এক পর্যায়ে একটি লোহার তৈরি হামানদিস্তা দিয়ে সালমার মাথায় আঘাত করলে সে নিস্তেজ হয়ে পড়ে। পরে শ্বাসরোধে হত্যা করে সহিদুল দেশে ফিরে আসেন। আদালত সহিদুলের জবানবন্দি ১৬৪ ধারায় রেকর্ড করেছেন।

বাংলাদেশ জার্নাল/এসকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত