ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ১৬ আষাঢ় ১৪২৯ আপডেট : ২২ মিনিট আগে

কুমিল্লা সিটি মেয়র প্রার্থীরা কে কত টাকার মালিক?

  কুমিল্লা প্রতিনিধি

প্রকাশ : ২০ মে ২০২২, ০৪:০৬

কুমিল্লা সিটি মেয়র প্রার্থীরা কে কত টাকার মালিক?
ছবি- প্রতিনিধি
কুমিল্লা প্রতিনিধি

কুমিল্লা সিটি নির্বাচনে নগর পিতা হতে লড়বেন ছয় মেয়র প্রার্থী। এর মধ্যে আলোচনা চলছে কে কত সম্পদের মালিক তা নিয়ে। সাবেক মেয়র মনিরুল হক সাক্কু তার হলফনামায় নগদ কোটি টাকার বেশি উল্লেখ করলেও আওয়ামী লীগের প্রার্থী আরফানুল হক রিফাতের নগদ কোনো টাকাই নেই। এছাড়া সাবেক স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা নিজাম উদ্দিন কায়সারসহ তিন প্রার্থীর গাড়ি নেই।

হলফনামায় সাক্কু উল্লেখ করেন, তার শিক্ষাগত যোগ্যতা এসএসসি। নিজের ও স্ত্রীর মোট দুইটি গাড়ি রয়েছে। তার পেশা ঠিকাদারি। তবে মেয়র থাকাকালীন সময়ে তিনি ঠিকাদরি কাজ করেননি বলে উল্লেখ করেন। নগদ টাকা আছে এক কোটি ৩৭ লাখ ৫৯ হাজার ৮৯২ টাকা। ব্যাংকে আছে ২ লক্ষ ৯৪ হাজার টাকা। স্বর্ণ আছে নিজের ১০ তোলা, স্ত্রীর ১০ তোলা। দুদক ও আয়কর বিভাগে দুইটি মামলা বিচারাধীন রয়েছে।

রিফাত উল্লেখ করেন, তার শিক্ষাগত যোগ্যতা বিএ। নিজের দুইটি গাড়ি রয়েছে। পেশা ঠিকাদারি তবে নগদ কোনো টাকা নেই। ব্যাংকে আছে ৬১ লক্ষ ২ হাজার ৪৯৫ টাকা। পোস্টাল সেভিংসে আছে ৭৮ লাখ ৬৭ হাজার ৪৫৪ টাকা। স্বর্ণ নিজের ২০ ভরি, স্ত্রীর রয়েছে ৩০ ভরি। কোনো মামলা চলমান নেই।

আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী প্রার্থী মাসুদ পারভেজ খান ইমরান উল্লেখ করেন, তার শিক্ষাগত যোগ্যতা বিএসএস। নিজের ও স্ত্রীর মোট দুইটি গাড়ি রয়েছে। তার পেশাও ঠিকাদারি। নগদ টাকা আছে ২ লক্ষ ৪২ হাজার ৭৪২ টাকা। ব্যাংকে আছে তিন লক্ষ ১৭ হাজার ২৮৮ টাকা। স্বর্ণ নিজের ২৫ তোলা, স্ত্রীর রয়েছে ৫০ তোলা। তার নামে দুইটি মামলা বিচারাধীন রয়েছে।

কায়সার উল্লেখ করেন, তার শিক্ষাগত যোগ্যতা বি.কম। তার গাড়ি নেই। পেশায় ব্যবসায়ী। নগদ আছে ৩৮ লাখ ৭২ হাজার ৯৩৫ টাকা। ব্যাংকে আছে ৩ লক্ষ ২ হাজার ৪৯৭ টাকা। স্বর্ণ নিজের ২০ তোলা, স্ত্রীর আছে ২০ ভরি। তার নামে আটটি মামলা বিচারাধীন রয়েছে।

স্বতন্ত্র প্রার্থী কামরুল আহসান বাবুল উল্লেখ করেন, তার শিক্ষাগত যোগ্যতা এইচএসসি। তার গাড়ি নেই। পেশা ব্যবসা। নগদ আছে ৩ লক্ষ ২০ হাজার টাকা। পাশে লেখা ব্যবসার পুঁজি। ব্যাংকে আছে ৫ হাজার টাকা। স্বর্ণ বিয়ের উপহার ৩০ ভরি। তার নামে দুইটি মামলা বিচারাধীন।

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী রাশেদুল ইসলাম উল্লেখ করেন, তার শিক্ষাগত যোগ্যতা কামিল। তার গাড়ি নেই। তিনি পেশায় কলেজ শিক্ষক। নগদ টাকা আছে ৫০ হাজার। ব্যাংকে আছে ২ লক্ষ ৪২৮ টাকা। স্ত্রীর স্বর্ণ আছে ২ ভরি। তার নামে কোনো মামলা নেই।

উল্লেখ্য, আগামী ১৫ জুন ইভিএমের মাধ্যমে কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহার ২৬ মে। ২৭ মে প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হবে জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে।

এ নির্বাচনে ১০৫টি কেন্দ্রে ৬৪০টি ভোট কক্ষ থাকবে। সব প্রার্থীকে আচরণবিধি মেনে চলার আহ্বান জানানো হয়েছে। নির্বাচনে ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন দুইজন তৃতীয় লিঙ্গের ভোটারসহ ২ লাখ ২৯ হাজার ৯২০ জন ভোটার।

নির্বাচনকে ঘিরে অতিরিক্ত নিরাপত্তায় মাঠে নেমেছে বিজিবি। গত ১৫ মে দুপুর থেকে নগরীতে এক প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে। একজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এই প্লাটুনের নেতৃত্বে রয়েছেন।

বাংলাদেশ জার্নাল/রাজু

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত