ঢাকা, সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ১৩ আষাঢ় ১৪২৯ আপডেট : কিছুক্ষণ আগে

হবিগঞ্জে ১২ অবৈধ ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও একটি ক্লিনিক সিলগালা

  হবিগঞ্জ প্রতিনিধি

প্রকাশ : ২৮ মে ২০২২, ২০:৩১

হবিগঞ্জে ১২ অবৈধ ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও একটি ক্লিনিক সিলগালা
ছবি: প্রতিনিধি
হবিগঞ্জ প্রতিনিধি

হবিগঞ্জে কর্তৃপক্ষের অনুমোদন ছাড়া কার্যক্রম পরিচালনা করার দায়ে ১২টি ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও একটি ক্লিনিক বন্ধ করে দিয়েছে হবিগঞ্জ সিভিল সার্জন অফিস।

শনিবার দুপুরে থেকে বিকেল পর্যন্ত অভিযান পরিচালনা করেন হবিগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ নুরুল হক। এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোজাম্মেল হোসেন এবং থানার ওসি।

হবিগঞ্জ সিভিল সার্জন অফিস সূত্রে জানা যায়, উপজেলার শায়েস্তাগঞ্জ নতুন ব্রিজ এলাকার পিপলস ডায়াগনস্টিক সেন্টার, সূর্যের আলো ডায়াগনস্টিক সেন্টার, চুনারুঘাট বাল্লা রোডের ঢাকা ডায়াগনস্টিক সেন্টার, চুনারুঘাট মধ্য বাজারের দি গ্রীন লাইফ ডায়াগনস্টিক সেন্টার, মধ্য বাজারের এমকে ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও ক্লিনিকের ক্লিনিক সাইট বন্ধ করে সিলগালা করে দেয়া হয়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোজাম্মেল হোসেন বলেন, অনিবন্ধিত ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও ক্লিনিক বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। নিবন্ধন ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিয়ে তারা ব্যবসা পুনরায় চালু করতে পারবেন।

মাধবপুরে বৈধ কাগজপত্র না থাকায় পাঁচটি ডায়াগনস্টিক সেন্টার বন্ধ করে দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। শনিবার বেলা সাড়ে তিনটার দিকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মঈনুল ইসলামের নেতৃত্বে মাধবপুর পৌর শহরে অভিযান চালিয়ে পাঁচটি প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেয়া হয়।

সূত্রে জানা যায়, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নির্দেশনায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শেখ মঈনুল ইসলামের নেতৃত্বে পৌর এলাকায় এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় লাইসেন্স নবায়ন না থাকায় সেবা ডায়াগনস্টিক, অ্যাপোলো ডায়াগনস্টিক, হক ডায়াগনস্টিক, প্রাইম ডায়াগনস্টিক ও তিতাস শিশু জেনারেল হাসপাতাল সাময়িকভাবে বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয়া হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন– সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. আলাউদ্দিন, মাধবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. ইশতিয়াক আল মামুনসহ।

এছাড়াও শায়েস্তাগজ্ঞ উপজেলার ১টি এবং বাহুবলে ২টি সিলগালা করা হয়েছে।

বাংলাদেশ জার্নাল/এসকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত