ঢাকা, বুধবার, ১০ আগস্ট ২০২২, ২৬ শ্রাবণ ১৪২৯ আপডেট : ৫ মিনিট আগে

জলবায়ু পরিবর্তন: দাতা‌দের প্রতিশ্রুতির এক পয়সাও পায়‌নি বাংলাদেশ

  নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশ : ০৪ জুলাই ২০২২, ২২:০১  
আপডেট :
 ০৪ জুলাই ২০২২, ২২:২১

জলবায়ু পরিবর্তন: দাতা‌দের প্রতিশ্রুতির এক পয়সাও পায়‌নি বাংলাদেশ
ছবি- সংগৃহীত
নিজস্ব প্রতিবেদক

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মো‌মেন জানিয়েছেন, জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে ক্ষতিগ্রস্ত দেশ হিসেবে বাংলাদেশ দাতাদের কাছ থেকে প্রতিশ্রুতির ১০০ বিলিয়ন ডলারের এক পয়সাও এখন পর্যন্ত পায়নি।

সোমবার রাজধানীর ফরেন সার্ভিস একাডেমিতে নি‌জের লেখা 'বাংলাদেশের ৫০: সাফল্য ও সম্ভাবনা' বইয়ের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে এ তথ্য জানান তি‌নি।

ড. মো‌মেন ব‌লেন, প্যারিসে জলবায়ু সম্মেলনে আমরাও এ নিয়ে কথা বলেছি। জি-২০ দেশগুলো তারাই সবচেয়ে বেশি পরিবেশন দূষিত করে থাকেন। এসব দেশ তাদের প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করছে না।

জলবায়ুর প্রভাবের ফলে দেশে প্রতি বছর ৬ লাখের মতো লোক বাস্তুচ্যুত হচ্ছে ব‌লে জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

মো‌মেন বলেন, আমাদের অনেক বড় বড় অর্জন রয়েছে। ২০২০ ও ২০২১ সালে আমাদের বড় ইভেন্ট হয়েছে। বাংলাদেশের ৫০ বছর ও মুজিব শতবর্ষ আমরা পালন করেছি। এগুলো নিবন্ধন আকারে যখন পত্রিকায় লিখেছি, তখন সেগুলো সংরক্ষণে বই আকারে সন্নিবেশিত করেছি। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে বাংলাদেশের সাফল্য ও তার ধারাবাহিকতা নিয়ে পোপ ফ্রান্সিসসহ বিশ্ব নেতারা অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

তি‌নি ব‌লেন, অর্থনৈতিক সাফল্য ও জলবায়ু পরিবর্তনে যে শক্তিশালী ভূমিকা সেটি নিয়েও তারা বিস্মিত হয়েছেন। আমি এগুলোকে স্থান দেয়ার চেষ্টা করেছি।

পাবলিক সার্ভিস কমিশনের সদস্য ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধ্যাপক ড. দেলোয়ার হোসেন বলেন, ৫০ বছরে এসে বাংলাদেশের অর্জনগুলো বইটিতে স্থান পেয়েছে। তারুণদের জন্য বইটি অনুপ্রেরণা।

এবি ব্যাংকের প্রেসিডেন্ট ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক তারিক আফজাল বলেন, বইয়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বাংলাদেশের প্রকৃত রূপ ফুটে উঠেছে। যেখানে বঙ্গবন্ধুর কূটনৈতিক দূরদর্শিতা নিয়ে লেখক আলোচনা করেছেন।

বাংলাদেশের ৫০: সাফল্য ও সম্ভাবনা'বইয়ের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানের শুরুতেই সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশন করা হয়। এরপর আলোচক অতিথি বক্তাদের উত্তরীয় পরিয়ে দেয়া হয়।

বইয়ের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও এবি ব্যাংকের কর্মকর্তারা এবং প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান 'ঝুমঝুমি'-এর প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ জার্নাল/এমএস

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত