ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১২ আশ্বিন ১৪২৯ আপডেট : ২ মিনিট আগে

ক্রেতার নাগালের বাইরে রড-সিমেন্টের দাম

  চট্টগ্রাম প্রতিনিধি

প্রকাশ : ১৬ আগস্ট ২০২২, ১২:১৩

ক্রেতার নাগালের বাইরে রড-সিমেন্টের দাম
চট্টগ্রাম প্রতিনিধি

দেশের বাজারে এর আগে এতো দাম দেখা যায়নি রডের। তবে জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রভাব পড়েছে রড-সিমেন্টের দামে। বর্তমানে টনপ্রতি রডের দাম ঠেকেছে ৯৫ হাজার টাকায়। আর নির্মাণকাজের মূল্যবান উপকরণ সিমেন্টের দামও বস্তাপ্রতি বেড়েছে ২০ টাকা। দফায় দফায় দাম বাড়ার কারণ হিসেবে দেখানো হচ্ছে গ্যাস-বিদ্যুতের সংকটে উৎপাদন কমে যাওয়া ও জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধিকে।

নগরের একেখান, ২ নম্বর গেইট, নাসিরাবাদসহ বেশকিছু এলাকা ঘুরে দেখা যায়, দুমাসের ব্যবধানে প্রতিটন রডের দাম বেড়েছে ৮ হাজার টাকা। ওই সময় প্রতিটন ৭৫ গ্রেডের রড ৮৭ হাজার টাকায় বিক্রি হলেও বর্তমানে তা ৯৫ হাজার টাকায় বিক্রি হচ্ছে। ৬০ গ্রেডের রড আগে ৭৩ হাজার টাকায় বিক্রি হলেও বর্তমানে বিক্রি হচ্ছে ৭৮ হাজার টাকায়। অন্যদিকে প্রতি বস্তা সিমেন্টে (৫০ কেজি) ২০ টাকা বেড়ে বিভিন্ন কোম্পানির সিমেন্ট ৫৩০ থেকে ৫৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

নগরের একেখান এলাকার শাহ আলম ট্রেডার্সের স্বত্ত্বাধিকারী শাহ আলম ভূঁইয়া বলেন, রডের এমন বাড়তি দাম দেখে শুধু ক্রেতা নয়, আমরাও রীতিমত অবাক। ফলে রডের সরবরাহও আগের তুলনায় কম। পাশাপাশি জ্বালানি তেলের দাম বাড়ার কারণে আমাদেরকে বাড়তি পরিবহন খরচ দিয়ে পণ্য আনতে হয়। তাই রডের দামটা বাড়তি।

এদিকে রড তৈরির প্রধান কাঁচামাল গলনশীল লোহার টুকরোর দাম বিশ্ববাজারে মাঝে কিছুটা কমলেও আবার বাড়তে শুরু করেছে। বিশ্ববাজারে প্রতি টন লোহার টুকরোর দাম ৪৩০-৪৪০ ডলার থেকে বেড়ে ৪৮০-৪৯০ ডলারে উন্নীত হয়েছে। বড় চালানে আমদানি করলে এই খরচ টনপ্রতি ২০ ডলার কম।

রড প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান কেএসআরএমের ডিরেক্টর (করপোরেট) সামশুল হক বলেন, বিশ্ববাজারে রড তৈরির প্রধান কাঁচামাল লোহার টুকরার দাম বেড়ে ৪৮০ থেকে ৪৯০ ডলার হয়েছে। পাশাপাশি রড তৈরির কাঁচামাল কারখানায় আনতে বাড়তি পরিবহন খরচ গুণতে হচ্ছে। গ্যাস-বিদ্যুতের সংকট তো আছেই। এ কারণে উৎপাদনও কিছুটা কমেছে। মোট কথা, উৎপাদন খরচ বেড়ে যাওয়ার কারণে রডের দামটা বেড়ে গেছে।

বাংলাদেশ জার্নাল/এমএফ/ওএফ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত