ঢাকা, বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ২১ আশ্বিন ১৪২৯ আপডেট : ৩৪ মিনিট আগে

ঢাকায় চা শ্রমিকরা ত্রিপক্ষীয় বৈঠকে বসছেন

  জার্নাল ডেস্ক

প্রকাশ : ১৭ আগস্ট ২০২২, ১৬:৫২  
আপডেট :
 ১৭ আগস্ট ২০২২, ১৭:৩৮

ঢাকায় চা শ্রমিকরা ত্রিপক্ষীয় বৈঠকে বসছেন
ফাইল ছবি
জার্নাল ডেস্ক

চা শ্রমিকরা দৈনিক মজুরি বাড়ানোর দাবিতে ত্রিপক্ষীয় বৈঠকে বসতে যাচ্ছেন। বুধবার বিকেলে ঢাকায় এই বৈঠক হতে যাচ্ছে বলে চা শ্রমিক ও বাগান মালিকদের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। শ্রম অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের সঙ্গে আলোচনার একদিন পর এ সিদ্ধান্ত নেয়া হলো।

আন্দোলনকারী সংগঠন বাংলাদেশ চা শ্রমিক ইউনিয়নের অর্থ সম্পাদক পরেশ কালিন্দি জানান, বিকেলে শ্রম অধিদপ্তরে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। এতে বাংলাদেশীয় চা সংসদের প্রতিনিধিরাও থাকবেন। শ্রীমঙ্গল থেকে বৈঠকে অংশ নিতে ইউনিয়নের একটি প্রতিনিধিদল ঢাকায় আসছেন।

চা বাগান মালিকদের সংগঠন বাংলাদেশীয় চা সংসদের (বিটিএ) সিলেটের চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ শিবলী জানান, সংগঠনের কেন্দ্রীয় চেয়ারম্যান শাহ আলমের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধিদল এই ত্রিপক্ষীয় বৈঠকে অংশ নেবেন। বৈঠক শেষে এ ব্যাপারে আরও জানানো হবে।

গত মঙ্গলবার বিভাগীয় শ্রম দপ্তরের উপ পরিচালকের সম্মেলন কক্ষে বেলা সাড়ে ১১টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত দুই দফার এ বৈঠক চলে। বৈঠকে শ্রম অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ডিজি খালিদ মামুন চৌধুরী এনডিসি সভায় সভাপতিত্ব করেন।

দৈনিক ৩০০ টাকা মজুরির দাবির কোনো সুরহা না হওয়ায় শ্রমিকরা শ্রম দপ্তরের আন্দোলন স্থগিত করার প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে। এসময় চা শ্রমিকদের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়লে মহাপরিচালক বিষয়টি নিষ্পত্তির লক্ষে বুধবার নিজ কার্যালয়ে আবারও সভা আহবান করে সভা মুলতবি টানেন।

বাংলাদেশ চা শ্রমিক ইউনিয়নের সাংগঠনিক সম্পাদক বিজয় হাজরা বলেন, মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টা থেকে বেলা আড়াইটা পর্যন্ত আমাদের সাথে প্রথম পর্বের আলোচনা হয়। কিন্তু আমাদের ৩০০ টাকা মজুরির দাবি নিয়ে আলোচনা করতে রাজি হননি কর্মকর্তারা। এ বিষয়ে আগামী ২৩ আগস্ট আলোচনার আশ্বাস দিয়ে কর্মসূচি স্থগিত করার প্রস্তাব দেন। পরে আমরা নিজেদের মধ্যে আলোচনা করেছি। মহাপরিচালকের এমন প্রস্তাব শোনার পর কেউ তা মানতে রাজি হয়নি।

তিনি বলেন, বিকেল সাড়ে ৩টায় আবার বৈঠক বসলে মহাপরিচালক মহোদয়কে আমাদের সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেই। এরপর তিনি বুধবার নিজ দপ্তরে ত্রিপক্ষীয় আলোচনার প্রস্তাব দিলে আমরা রাজি হয়েছি। তবে আলোচনার পাশাপাশি আন্দোলন দুটোই চলবে।

এর আগে চা শ্রমিক নেতাদের নিয়ে শ্রম অধিদপ্তরের মহাপরিচালক(ডিজি) খালেদ মামুন চৌধুরী এনডিসিসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা শ্রীমঙ্গলে বিভাগীয় শ্রম দপ্তরের কার্যালয়ে বৈঠকে বসেন।

উল্লেখ্য, গত ১৩ আগষ্ট সকাল থেকে মজুরি বৃদ্ধির দাবীতে শ্রীমঙ্গলসহ দেশের ২৪০টি চা বাগানে শ্রমিকরা একযোগে কর্মবিরতি পালন করছেন।

বাংলাদেশ জার্নাল/এমএস

  • সর্বশেষ
  • পঠিত