ঢাকা, রোববার, ০২ অক্টোবর ২০২২, ১৮ আশ্বিন ১৪২৯ আপডেট : ১১ মিনিট আগে

সাংবাদিকদের ওপর হামলাকারীদের ৩ দিনের মধ্যে গ্রেপ্তারের আল্টিমেটাম

  চট্টগ্রাম প্রতিনিধি

প্রকাশ : ১৮ আগস্ট ২০২২, ১৫:০১

সাংবাদিকদের ওপর হামলাকারীদের ৩ দিনের মধ্যে গ্রেপ্তারের আল্টিমেটাম
ছবি: প্রতিনিধি
চট্টগ্রাম প্রতিনিধি

চট্টগ্রাম আদালত ভবন এলাকায় যমুনা টেলিভিশনের ২ সাংবাদিকের ওপর হামলাকারীদের আগামী ৩ দিনের মধ্যে গ্রেপ্তারের আল্টিমেটাম দিয়েছেন চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের (সিইউজে) নেতারা।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১টায় চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সামনে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে এ আল্টিমেটাম দেন সাংবাদিক নেতারা।

এসময় সাংবাদিক নেতারা বলেন, আগামী ৩ দিনের মধ্যে দোষী আইনজীবীদের গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনতে হবে। আমরা শুক্র, শনি ও রোববার এ তিন দিন প্রশাসনের ভূমিকা দেখব। এরপর যদি হামলাকারীদের আইনের আওতায় আনা না হয় তাহলে বৃহত্তর কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।

বক্তারা আরও বলেন, আগস্ট মাসে সাংবাদিকদের ওপর হামলার একাধিক ঘটনা ঘটেছে। এসব ঘটনা পূর্বপরিকল্পিত কিনা তা প্রশাসনকে তদন্ত করে দেখতে হবে। এ মাসেই ভোরের কাগজের সিনিয়র প্রতিবেদক প্রীতম দাশের ওপর হামলা করে দুর্বৃত্তরা। তাদেরকেও চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনতে হবে।

সমাবেশে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের যুগ্ম মহাসচিব মহসিন কাজী বলেন, আইনজীবী দ্বারা আরেকটি পেশাজীবি গোষ্ঠীর ওপর হামলার ঘটনা নজিরবিহীন। যারা গতকাল আইন পেশাকে কলংকিত করেছেন তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি। একইসাথে কয়েকদিন আগে সাংবাদিক প্রীতম দাশের উপর হামলাকারীদেরও গ্রেপ্তারপূর্বক শাস্তি চাই।

চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মোহাম্মদ আলী বলেন, দ্রুত দোষীদের শাস্তি দিয়ে নজির স্থাপন করুন। অন্যথায় সাংবাদিক সমাজ বসে থাকবে না। সাংবাদিকদের ওপর হামলাকারীদের গ্রেপ্তার করা না হলে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় ও প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ে স্মারকলিপি প্রদানসহ বৃহত্তর কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।

সমাবেশে চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক শামসুল ইসলাম বলেন, যারা এ ন্যাক্কারজনক ঘটনা ঘটিয়েছে তাদেরকে আইনের আওতায় আনতে হবে। তারা আইনের পোশাক পরে আইন পেশাকে কলংকিত করেছেন। তারা এ পেশায় থাকার যোগ্য নয়। আমাদের আন্দোলন আইনজীবী সমাজের বিরুদ্ধে নয়, আইন পেশার প্রতিও নয়, আমাদের বিদ্বেষ তাদের প্রতি যারা আইনের পোশাক পরে দুর্বৃত্তায়ন করেছেন।

সমাবেশে বক্তারা অবিলম্বে দোষী আইনজীবীদের সনদ বাতিল করার দাবি জানান। সমাবেশ শেষে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সামনে থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়ে জামালখান ও চেরাগী মোড় প্রদক্ষিণ করে।

সমাবেশে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সভাপতি আব্বাস উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী ফরিদ, বিএফইউজে’র সাবেক যুগ্ম মহাসচিব তপন চক্রবর্তী, চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সবুর শুভ প্রমুখ।

উল্লেখ্য, গতকাল বুধবার বিকাল সাড়ে ৩টায় চট্টগ্রাম আদালত প্রাঙ্গণে সংবাদ সংগ্রহের জন্য গিয়ে কয়েকজন আইনজীবীর হামলার শিকার হন যমুনা টেলিভিশনের চট্টগ্রাম অফিসের স্টাফ রিপোর্টার আল আমিন সিকদার এবং ক্যামেরাপারসন আসাদুজ্জামান লিমন। পরে আইনজীবী সমিতির অফিসে নিয়েও তাদের লাঞ্ছিত ও মারধর করা হয়।

এ ঘটনায় রাতেই সাংবাদিক আল আমিন সিকদার বাদী হয়ে দুইজনকে আসামি করে নগরীর কোতোয়ালী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

এ বিষয়ে চট্টগ্রাম আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক এ এইচ এম জিয়া উদ্দিন দাবি করেন, ‘সাংবাদিকদের ওপর হামলার ঘটনায় আমরা লজ্জিত। এ ঘটনায় যারা জড়িত তাদের বিরুদ্ধে সমিতির নিয়ম অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে। এর সঙ্গে কারা কারা জড়িত আছে তাদের চিহ্নিত করার চেষ্টা চলছে।’

কোতয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহিদুল কবির বলেন, ‘আদালত প্রাঙ্গণে দুই সাংবাদিকের ওপর হামলার ঘটনায় বুধবার রাতে মামলা হয়েছে। আমরা বিষয়টি তদন্ত করে দেখছি।’

বাংলাদেশ জার্নাল/মনির

  • সর্বশেষ
  • পঠিত