ঢাকা, বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ আপডেট : ১ মিনিট আগে
শিরোনাম

পতেঙ্গায় প্রতিমা বিসর্জনে মানুষের ঢল

  চট্টগ্রাম প্রতিনিধি

প্রকাশ : ০৫ অক্টোবর ২০২২, ১৬:২৩

পতেঙ্গায় প্রতিমা বিসর্জনে মানুষের ঢল
প্রতিমা বিসর্জন। ছবি: প্রতিনিধি
চট্টগ্রাম প্রতিনিধি

প্রতিমা বিসর্জনে চট্টগ্রামের পতেঙ্গা সমুদ্র সৈকতে মানুষের ঢল নেমেছে। নিজেদের ধর্মের রেওয়াজ মতে তেল-সিঁদুর পরিয়ে, পান-মিষ্টি মুখে দিয়ে দেবী দুর্গাকে বিদায় জানাতে পতেঙ্গা সমুদ্র সৈকতে ভক্ত ও অনুসারীদের এই ভিড় ছিল লক্ষণীয়।

বুধবার দুপুর আড়াইটায় শুরু হয় প্রতিমা বিসর্জন। সকাল থেকেই চট্টগ্রাম মহানগরীর বিভিন্ন পূজামণ্ডপ থেকে বিসর্জনের জন্য প্রতিমা নিয়ে ঢাক-ঢোল বাজিয়ে ভক্তরা জড়ো হতে শুরু করেন পতেঙ্গা সৈকতে। এরপর শুরু হয় বিসর্জনের পালা।

হিন্দু পঞ্জিকা অনুযায়ী, এ বছর দেবী দুর্গা মর্ত্যে এসেছেন গজে চড়ে। শাস্ত্রমতে গজ হলো দেবীর উৎকৃষ্টতম বাহন। তাই দেবীর আগমন হাতিতে হলে মর্ত্যলোক ভরে ওঠে সুখ-শান্তি-সমৃদ্ধিতে। পূর্ণ হয় ভক্তদের মনোবাঞ্ছা। পরিশ্রমের সুফল পায় মর্ত্যলোকের অধিবাসীগণ। অতিবৃষ্টি বা অনাবৃষ্টি নয়, ঠিক যতটা প্রয়োজন ততটা বর্ষণ হয়। বুধবার বিজয়া দশমীতে মা দুর্গা পুত্র-কন্যাসহ কৈলাশে ফিরবেন নৌকায় চেপে।

বাদ্যের ঘণ্টা বাজিয়ে ‘জয়, দুর্গা মায়ের জয়’ বলে একের পর এক প্রতিমা ভাসিয়ে দেয়া হয় সাগরে। বিকেল ৪টা পর্যন্ত প্রায় ৪০টির মতো প্রতিমা বিসর্জন দেয়া হয়েছে। হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব পাঁচ দিনব্যাপী দুর্গাপূজা। দুর্গার বিদায় উপলক্ষে সকাল থেকে বিদায়ের সুর বেজে উঠে বিভিন্ন মণ্ডপে।

প্রতিমা বিসর্জনের জন্য পতেঙ্গা সৈকত এলাকায় মানুষের ঢল

চট্টগ্রাম মহানগর পূজা উদ্যাপন পরিষদের সভাপতি লায়ন আশীষ কুমার ভট্টাচার্য্য বলেন, এ বছর চট্টগ্রাম নগরীর প্রধান পূজামণ্ডপ জেএম সেন হলসহ ১৬টি থানায় ব্যক্তিগত, ঘটপূজাসহ ২৮২টি পূজামণ্ডপে পূজা উদযাপন হয়। পরিষদের পক্ষ থেকে সবাইকে বুধবার (৫ অক্টোবর) সন্ধ্যা ৬টার মধ্যে প্রতিমা বিসর্জন দেয়ার অনুরোধ জানানো হয়েছে। ধর্মীয় রীতি মেনে নগরের পতেঙ্গা সমুদ্র সৈকত, নেভাল-২, অভয়মিত্র ঘাট এবং কালুরঘাট সেতু এলাকায় কর্ণফুলী নদীতে প্রতিমা বিসর্জন দেয়া হবে।

পতেঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাহফুজুর রহমান জানান, শান্তিপূর্ণভাবে সাগরে প্রতিমা বিসর্জন দিচ্ছেন হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা। সমুদ্র সৈকতে এবং আশেপাশের এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশও মোতায়েন করা হয়েছে।

বাংলাদেশ জার্নাল/এসকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত