ঢাকা, রোববার, ০৩ জুলাই ২০২২, ১৯ আষাঢ় ১৪২৯ আপডেট : ১ মিনিট আগে

ঈদ শেষে স্কুলে ফিরল শিক্ষার্থীরা

  আসিফ কাজল

প্রকাশ : ০৯ মে ২০২২, ১৮:১৪  
আপডেট :
 ০৯ মে ২০২২, ১৮:৫৭

ঈদ শেষে স্কুলে ফিরল শিক্ষার্থীরা
ছবি- ইলিয়াছ সাজু।
আসিফ কাজল

কেউ প্রিয় বন্ধুকে দেখেই মুখে মুচকি হাসি। আবার ঈদ পরবর্তী দেখা হওয়ায় আলিঙ্গন আর কোলাকুলি। ঈদের লম্বা ছুটি কাটিয়ে স্কুলে ফিরেছে শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থী উপস্থিতি কম হলেও পুরোদমে চলেছে ক্লাস। রাজধানীর একাধিক স্কুল ঘুরে এমন চিত্রই চোখে পড়েছে।

ঢাকা কলেজিয়েট স্কুলে মোট শিক্ষার্থীর ৬০ ভাগ উপস্থিত হলেও ক্লাস হয়েছে শতভাগ। শিক্ষকরা বলছেন, ঈদ পরবর্তী সময় হলেও ক্লাসে মনোযোগী ছিল শিক্ষার্থীরা। কারণ করোনায় দীর্ঘ বিরতি থাকায় অনেক শিক্ষার্থী পিছিয়ে পড়েছে।

সকালে ভিকারুননিসা স্কুল এন্ড কলেজের সামনে দেখা যায় শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের ভিড়। ঈদের পর বন্ধুদের সঙ্গে দেখা হওয়ায় শিক্ষার্থীরা আইসক্রীম খেয়েও যেন ঈদের খুশি ভাগাভাগি করেছে। শিক্ষার্থীরা এই সময় বলেন, ঈদের পর স্কুলে আসতে পেরে অনেক খুশি লাগছে। একদিন আমরা পরিবারের সঙ্গে সময় কাটিয়েছি। আবার আমরা ফিরেছি প্রিয় বন্ধু ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের কাছে। অন্তত এই সপ্তাহ পড়াশুনোর চাপ কম থাকবে বলেও জানান তারা।

এদিকে বিকেলে ধানমন্ডি গভ:মেন্ট বয়েজ স্কুলের সামনে দেখা যায় শিক্ষার্থীরা ক্লাস শেষে বের হচ্ছে। তারা জানায়, ঢাকার রাস্তায় জ্যাম কম থাকায় অল্প সময়েই স্কুলে আসতে পেরেছি। আবার অল্প সময়েই বাসায় ফিরতে পারবো।

তবে অভিভাবকরা বলছেন, ঈদের ছুটি শেষ হলেও এখনো ঢাকার রাস্তায় ট্রাফিক জ্যাম আগের মতো বাড়েনি। এই সপ্তাহ অন্তত আরামে স্কুলে বাচ্চাদের নিয়ে আসা-যাওয়া করা যাবে। তবে সামনের সপ্তাহ থেকে আবার আগের রুপে ফিরবে ঢাকা। তখন যেমন বাচ্চাদের কষ্ট হবে তেমনি আমাদেরও ঘণ্টার পর ঘণ্টা রাস্তায় অপেক্ষা করতে হবে।

এদিকে ঈদের ছুটি শেষে আগামী ১২ তারিখ থেকে খুলবে দেশের সব প্রাথমিক বিদ্যালয়। স্কুল খোলার বিষয়ে প্রস্তুতিও রয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের।

শিক্ষকরা বলেন, পুরো রমজান মাস জুড়ে প্রায় ক্লাস করতে হয়েছে প্রাথমিকের শিক্ষকদের। অন্যবার রমজানে প্রাথমিক বিদ্যালয় বন্ধ থাকলেও এবার ২০ রমজান পর্যন্ত চলেছে স্কুল। তবে ঈদ পরবর্তী নতুন উদ্যোমে শুরু হবে ক্লাস।

অন্যদিকে দেশের সব এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানেও আজ থেকে শুরু হয়েছে শ্রেণি কার্যক্রম। তবে এসব বিদ্যালয়েও শিক্ষার্থী উপস্থিতি কম। কারণ হিসেবে স্কুল কর্তৃপক্ষ বলছে, অনেকেই পরিবারের সঙ্গে ঈদ করতে ঢাকার বাইওে (গ্রামের বাড়িতে) গিয়েছে। অনেক শিক্ষার্থী এখনো সেখানেই পরিবারের সঙ্গে রয়েছেন। যেকারণে শিক্ষার্থী উপস্থিতি কম।

রাজধানীর মগবাজারে অবস্থিত শেরবাংলা স্কুল বন্ধ ছিল আজও। শিক্ষকরা বলছেন, আগামীকাল থেকে শুরু হবে স্কুল কার্যক্রম। কারণ হিসেবে তারা জানান, স্কুলটি নির্ধারিত ছুটির একদিন পর বন্ধ করা হয়েছিল যেকারণে একদিন বাদেই খোলা হবে। কিন্তু কিন্ডারগার্টেন ও কিছু বেসরকারি স্কুল ও বিশ্ববিদ্যালয় গতকাল রোববার থেকেই খুলেছে।

উল্লেখ্য, পবিত্র রমজান ও ঈদুল ফিতর উপলক্ষে স্কুল-কলেজে ছুটি ছিল ১৭ দিন ও প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ১৪ দিনের ছুটি দিয়েছিল সরকার।

বাংলাদেশ জার্নাল/একে/এমএম

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত