এনএসইউতে কোভিড ভ্যাকসিন নিয়ে বিশেষ ওয়েবিনার

প্রকাশ : ০৭ আগস্ট ২০২২, ১৮:১৮ | অনলাইন সংস্করণ

  জার্নাল ডেস্ক

নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটির আইন বিভাগের উদ্যোগে ‘প্রয়োজনীয়তা নাকি নমনীয়তা: ভ্যাকসিনের জন্য ট্রিপস ছাড় সংক্রান্ত ভাবনা’ শীর্ষক ওয়েবিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

ব্রায়ান মারকুরিও, সাইমন এফএস লি অধ্যাপক, চাইনিজ ইউনিভার্সিটি অফ হংকং এই ওয়েবিনারে  আমন্ত্রিত বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন। 

নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটির আইন বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক রিজওয়ানুল ইসলাম সূচনা বক্তব্য রাখেন এবং ওয়েবিনার পরিচালনা করেন। 

অধ্যাপক ইসলাম তার বক্তব্যে উল্লেখ করেন যে, ভ্যাকসিনের উপর বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার (ডব্লিউটিও) ছাড় একটি জটিল বিষয় এবং নতুন  ছাড় একটি ভালো উদাহরণ যেখানে বিতর্কের কোনো পক্ষই বলতে পারবেনা যে  ছাড়টি হুবহু তাদের অবস্থানকেই প্রতিফলিত করে।

অধ্যাপক মারকুরিও ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকার প্রস্তাব থেকে শুরু হওয়া কোভিড-১৯ সম্পর্কিত ভ্যাকসিন, চিকিৎসার সুবিধা এবং ডায়াগনস্টিকসের জন্য মেধা সম্পত্তি অধিকার মওকুফ করার দর-কষাকষি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন। মূল প্রস্তাবটি বেশিরভাগ উন্নয়নশীল দেশ সমর্থন করলেও প্রায় সকল উন্নত দেশে আপত্তি জানায়। 

অবশেষে, ২০২১ সালের জুনে বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার মন্ত্রী পর্যায়ের সম্মেলনে শুধুমাত্র কোভিড ভ্যাকসিনের মেধাস্বত্ব ছাড়ের সিদ্ধান্তটি গৃহীত হয়। তাঁর দৃষ্টিতে,  গৃহীত ছাড়টি ট্রিপস চুক্তির ৩১ অনুচ্ছেদে থাকা বাধ্যতামূলক লাইসেন্সিং এবং সম্পর্কিত বিধানগুলি ব্যবহার করার ক্ষেত্রে নমনীয়তা ছাড়া আর কিছুই নয়। যদি রপ্তানি বাজার প্রাথমিক লক্ষ্য হয়, তবে আমদানিকারক সদস্যকে আরও শ্রমসাধ্য এবং সময়সাপেক্ষ আনুষ্ঠানিকতা পূরণ না করেও এখন বৈধভাবে ভ্যাকসিন  পাওয়ার সুযোগ তৈরি হয়েছে। 

এটি ছিল নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ে আইন বিভাগের আন্তর্জাতিক ওয়েবিনার সিরিজের ৩০ তম ওয়েবিনার, যা ২০২১ সালের জানুয়ারি থেকে শুরু হয়েছে। অস্ট্রেলিয়া, অস্ট্রিয়া, জার্মানি, নিউজিল্যান্ড, নেদারল্যান্ডস, সুইজারল্যান্ড, যুক্তরাজ্য এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের খ্যাতনামা অধ্যাপকবৃন্দ এই ওয়েবিনার সিরিজটির বিভিন্ন পর্বে আইনের বিভিন্ন বিষয়ে  তাঁদের গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য প্রদান করেছেন।

বাংলাদেশ জার্নাল/আরকে