ঢাকা, শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ আপডেট : কিছুক্ষণ আগে
শিরোনাম

এনএসইউতে ‘জরায়ুমুখ ক্যান্সার সচেতনতা’ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত

  জার্নাল ডেস্ক

প্রকাশ : ০২ অক্টোবর ২০২২, ১৬:১২

এনএসইউতে ‘জরায়ুমুখ ক্যান্সার সচেতনতা’ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত
সংগৃহীত ছবি
জার্নাল ডেস্ক

রাজধানীর নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটিতে ‘জরায়ু মুখ ক্যান্সার সচেতনতা’ শীর্ষক সেমিনার রোববার অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে জরায়ু মুখ ক্যান্সার কী, কেন হয়, প্রাথমিক লক্ষণ এবং প্রতিকার ও প্রতিরোধ নিয়ে আলোচনা করা হয়। এছাড়াও সেমিনারে দেশের এইচপিভি ভ্যাকসিনের (হিউম্যান পাপিললোমাভাইরাস) প্রয়োজনীয়তা এবং ক্যান্সার নির্মূলে নিয়মিত স্ক্রিনিং ও এইচপিভি ভ্যাকসিন (হিউম্যান পাপিললোমাভাইরাস) প্যাপিলোভ্যাক্সের সূচনা হলে কীভাবে এটি জরায়ু মুখের ক্যান্সার মুক্ত দেশ অর্জনে অবদান রাখতে পারে এ নিয়ে আলোচনা হয়। একই সাথে এই ভ্যাকসিনের চ্যালেঞ্জ ও সুযোগগুলোও সংক্ষেপে তুলে ধরা হয়।

সেমিনারের আয়োজন করে নর্থ সাাউথ বিশ্ববিদ্যালয় মডেল ফার্মেসি, ডিপার্টমেন্ট অব ফার্মাসিউটিক্যাল সায়েন্সেস। সার্বিক আয়োজনে সহযোগিতা করেছে ইনসেপ্টা ফার্মাসিউটিক্যাল লিমিটেড।

নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিপার্টমেন্ট অব ফার্মাসিউটিক্যাল সায়েন্সের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. জি এম সায়েদুর রহমানের স্বাগত বক্তব্যের মধ্য দিয়ে সেমিনার শুরু হয়। সেমিনারে মূল বিষয়ের উপর বক্তব্য উপস্থাপন করেন শহীদ মনসুর আলী মেডিক্যাল কলেজের সহযোগী অধ্যাপক ডা. নাফিসা আমিন খান।

বক্তব্য শেষে তিনি প্রশ্নোত্তর পর্বও পরিচালনা করেন।

সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য উপস্থাপন করেন নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আতিকুল ইসলাম। সমাপনী বক্তব্য প্রদান করেন নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের স্কুল অফ হেলথ অ্যান্ড লাইফ সায়েন্সের ডিন অধ্যাপক ড. হাসান মাহমুদ রেজা।

উল্লেখ্য যে, বাংলাদেশে জরায়ুমুখ ক্যান্সার প্রতিরোধে এখন প্যাপিলোভ্যাক্স নামে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ এইচপিভি ভ্যাকসিন ইনসেপ্টা ফার্মাসিউটিক্যাল লিমিটেডের মাধ্যমে কম খরচে পাওয়া যাচ্ছে। জরায়ুমুখ ক্যান্সার বাংলাদেশে মহিলাদের মধ্যে দ্বিতীয় এবং বিশ্বব্যাপী চতুর্থ সর্বাধিক সাধারণ ক্যান্সার। বাংলাদেশে ক্যান্সারে নারী মৃত্যুর মধ্যে জরায়ুমুখ ক্যান্সার দ্বিতীয় প্রধান কারণ। এই ক্যান্সারে মৃত্যুর প্রধান কারণ অসচেতনতা এবং অনেক বছরের অবহেলা। প্রতি বছর দেশে ১০ হাজারের বেশি নারী জরায়ুমুখ ক্যান্সারে মারা যায়। ৯ থেকে ৪৫ বছর পর্যন্ত সকল সুস্থ নারীকে এই ভ্যাকসিন দেয়ার মাধ্যমে বাংলাদেশ জরায়ুমুখের ক্যান্সার নির্মূলের পথ অনেকটা এগিয়ে যাবে। ইনসেপ্টা ফার্মাসিউটিক্যাল লিমিটেড দেশে প্রথমবারের মতো জরায়ুমুখ ক্যান্সারের ভ্যাকসিন, প্যাপিলোভ্যাক্স বাজারজাত শুরু করেছে। এটি দেশের জন্য একটি গর্বের, যা দেশ থেকে জরায়ু মুখের ক্যান্সার নির্মূল করার পথ প্রশস্ত করবে।

বাংলাদেশ জার্নাল/আরকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত