ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ০৫ আগস্ট ২০২১, ২১ শ্রাবণ ১৪২৮ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে

অভিযুক্তের নাম প্রকাশ করলেন পরীমণি

  নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশ : ১৩ জুন ২০২১, ২৩:৩২  
আপডেট :
 ১৪ জুন ২০২১, ১০:১২

অভিযুক্তের নাম প্রকাশ করলেন পরীমণি

নিজস্ব প্রতিবেদক

ঢালিউডের এইসময়ের জনপ্রিয় নায়িকা পরীমনি তাকে ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টা করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন। নাসির উদ্দিন মাহমুদ নামে এক ব্যাক্তি তাকে ধর্ষণ ও হত্যার চেষ্টা করে বলে তিনি জানান।

রোববার রাত ১১ টার পর বনানীর নিজ বাসায় সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান পরীমণি নিজেই।

ঢাকাই সিনেমার আলোচিত এই নায়িকা জানান, বুধবার রাতে উত্তরার বোট ক্লাবে ঘটনাটি ঘটে। নাসির উদ্দিন মাহমুদ নামে একজন তাকে নেশাজাতীয় কিছু খাইয়ে এ ঘটনা ঘটাতে চেয়েছিলেন। একসময় ওই ব্যক্তি উত্তরা ক্লাবের প্রেসিডেন্ট ছিলেন। একটি সিনেমার মিটিংয়ের কথা বলে অমি নামে এক পূর্বপরিচিত তাকে সেদিন রাতে বোট ক্লাবে নিয়ে যাওয়া হয়।

কান্নায় ভেঙে পড়ে পরীমণি বলেন, ‘বেশ ক’দিন ধরেই এই বৈঠকের কথা চলছিলো। কিন্তু আমি আগ্রহ পাচ্ছিলাম না। পরে অমির অনুরোধে সেদিন রাতে আমি বৈঠকে যাই। যাওয়ার পর যা ঘটেছে সেটা আর বলে বোঝাতে পারবো না।’

তিনি আরও জানান, সেদিন রাতে তাকে পানীয়র সঙ্গে কিছু একটা খাওয়ানো হয়েছিল। কারণ, সারাক্ষণ তিনি প্রচণ্ড অস্থির আর অস্বস্তি বোধ করছিলেন। এরমধ্যে তাকে করতে হয়েছে বাঁচার যুদ্ধ। সেখান থেকে সেদিন রাতে বেরিয়েই পরী যান বনানী থানায়। থানাতে তার অভিযোগ শুনলেও সাধারণ ডায়েরি করেননি কর্তব্যরত অফিসার।

পরীমনি বলেন, আমি সুইসাইড করার মতো মেয়ে নই। কিন্তু কোনো কারণে আমি যদি মারা যাই, ধরে নেবেন আমাকে মারা হয়েছে।

এর আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাহায্য চেয়ে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছিলেন পরীমনি। সেখানে প্রধানমন্ত্রীকে মা ডেকে তার কাছে সঠিক বিচার চেয়েছেন নায়িকা।

রোববার রাত ৮টার দিকে নিজের ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে প্রধানমন্ত্রী বরাবর একটি খোলা চিঠি লিখেন নায়িকা। সেই চিঠিটি বাংলাদেশ জার্নালের পাঠকদের জন্য হুবুহু তুলে ধরা হলো-

বরাবর,

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আমি পরীমণি। এই দেশের একজন বাধ্যগত নাগরিক। আমার পেশা চলচ্চিত্র।

আমি শারীরিক নির্যাতনের শিকার হয়েছি।

আমাকে রেপ এবং হত্যা করার চেষ্টা করা হয়েছে।

আমি এর বিচার চাই।

এই বিচার কই চাইবো আমি? কোথায় চাইবো? কে করবে সঠিক বিচার? আমি খুঁজে পাইনি গত চার দিন ধরে। থানা থেকে শুরু করে আমাদের চলচ্চিত্র বন্ধু বেনজির আহমেদ আইজিপি স্যার! আমি কাউকে পাইনা মা।

যাদেরকে পেয়েছি সবাই শুধু ঘটনা বিস্তারিত জেনে, দেখছি বলে চুপ হয়ে যায়!

আমি মেয়ে, আমি নায়িকা, তার আগে আমি মানুষ। আমি চুপ করে থাকতে পারিনা। আজ আমার সাথে যা হয়েছে তা যদি আমি কেবল মেয়ে বলে, লোকে কী বলবে এই গিলানো বাক্য মেনে নিয়ে চুপ হয়ে যাই, তাহলে অনেকের মতো (যাদের অনেক নাম এক্ষুণি মনে পরে গেল) তাদের মতো আমিও কেবল তাদের দল ভারী করতে চলেছি হয়তো।

আফসোস ছাড়া কারোর কি করবার থাকবে তখন!

আমি তাদের মতো চুপ কি করে থাকতে পারি মা?

আমি তো আপনাকে দেখিনি চুপ থেকে কোন অন্যায় মেনে নিতে!

বাংলাদেশ জার্নাল/এমএম

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত