ঢাকা, রোববার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ আপডেট : ৫ মিনিট আগে

ব্যবসা করেন, মানুষকে কষ্ট দিয়েন না: এফবিসিসিআই সভাপতি

  নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশ : ১৭ অক্টোবর ২০২১, ১৮:২৪

ব্যবসা করেন, মানুষকে কষ্ট দিয়েন না: এফবিসিসিআই সভাপতি
নিজস্ব ছবি
নিজস্ব প্রতিবেদক

ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের (এফবিসিসিআই) সভাপতি জসিম উদ্দিন নিত্যপণ্য ব্যবসায়ীদের উদ্দেশে বলেছেন, ‘আমরা ব্যবসা করবো। কিন্তু এমন কিছু করবো না, যাতে পুরো ব্যবসায়ী সমাজের ওপর দোষ বা বদনাম চলে আসে। সুযোগ পেলে অপব্যবহার কইরেন না। ব্যবসা করেন, কিন্তু মানুষকে কষ্ট দিয়েন না।’

রোববার দুপুরে এফবিসিসিআই’র আয়োজনে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যসামগ্রীর মজুত, আমদানি, সরবরাহ ও মূল্য পরিস্থিতি বিষয়ে মতবিনিময় সভায় এসব কথা বলেন ফেডারেশনের সভাপতি জসিম উদ্দিন। মতিঝিলের এফবিসিসিআই আইকন ভবনে অনুষ্ঠিত এই মতবিনিময় সভায় নিত্যপণ্যের আমদানিকারক, আড়তদার ও খুচরা পর্যায়ের ব্যবসায়ীদের নেতারা অংশ নেন।

জসিম উদ্দিন আরও বলেন, করোনাকালে সাধারণ মানুষের আয় কমে গেছে। নিত্যপণ্যের দাম বাড়লে মানুষের কষ্ট হয়। বাস্তবতা হচ্ছে মাছ, মাংস, পোলট্রি, পেঁয়াজের মতো নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্য অসম্ভব বেড়ে গেছে।

ব্যবসায়ীদের উদ্দেশে জসিম উদ্দিন বলেন, গত সপ্তাহে যেদিন পেঁয়াজের শুল্ক প্রত্যাহার করা হলো, সেদিন বিকেলেই প্রতি কেজি পেঁয়াজের দাম ১৫ টাকা কমে গেল। শুল্কমুক্ত সুবিধায় পেঁয়াজ আমদানির আগেই দাম কমাতে পারতেন। তার মানে দাম কমানোর সুযোগ ছিল। তাহলে আগে কেনো দাম কমালেন না?

এফবিসিসিআই সভাপতি আরএ বলেন, রংপুরের একটি পণ্য পাঁচ টাকায় বিক্রি হয়। ঢাকার কারওয়ান বাজারে সেটির দাম বেড়ে ১০ টাকা হয়। গুলশানে গেলেই সেটি ২০-২৫ টাকা হয়ে যায়। এত লাভ করতে হবে কেনো?

বাংলাদেশ জার্নাল/আ'র/এসকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত