ঢাকা, শুক্রবার, ০৭ অক্টোবর ২০২২, ২৩ আশ্বিন ১৪২৯ আপডেট : ৩ মিনিট আগে

৩ বছরে পদার্পণ করলো ফ্রিল্যান্সিংয়ের সেরা প্রতিষ্ঠান ‘এস আর ড্রিম আইটি’

  জার্নাল ডেস্ক

প্রকাশ : ০৪ আগস্ট ২০২২, ১৫:২২

৩ বছরে পদার্পণ করলো ফ্রিল্যান্সিংয়ের সেরা প্রতিষ্ঠান ‘এস আর ড্রিম আইটি’
জার্নাল ডেস্ক

স্বপ্ন, দুটি বর্ণের ছোট্ট একটা শব্দ হলেও এর বিশালতা ব্যাপক। এই স্বপ্নই মানুষকে এগিয়ে নিয়ে যায় সামনের দিকে। প্রতিদিন নিজের সর্বোচ্চ দেওয়ার এবং নিজেকে ছাড়িয়ে যাওয়ার জন্য অনুপ্রাণিত করে।

আমাদের দেশে অনেকের স্বপ্ন থাকে স্বাবলম্বী ও স্বনির্ভর হওয়ার কিন্তু দেশে যত সংখ্যক শিক্ষিত তরুণ আছেন সে হিসেবে চাকরির সংখ্যা খুবই নগণ্য। এই বিশাল শিক্ষিত বেকার তরুণদের জন্য আশীর্বাদ হয়ে এসেছে ফ্রিল্যান্সিং পেশা। বিভিন্ন সেক্টরেই ফ্রিল্যান্সিং করা যায়। যেমন- গ্রাফিক্স ডিজাইন, ওয়েব ডেভেলপমেন্ট, কন্টেন্ট রাইটিং, ডিজিটাল মার্কেটিং ইত্যাদি। তবে এই মূহুর্তে সবচেয়ে চাহিদাসম্পন্ন স্কিল হচ্ছে ডিজিটাল মার্কেটিং।

ডিজিটাল মার্কেটিং শিখে এখন অনেকেই স্বাবলম্বী হচ্ছে এবং দিন দিন দেশে ফ্রিল্যনাসার ডিজিটাল মার্কেটারের সংখ্যাও বাড়ছে। মানসম্মত ডিজিতাল মার্কেটার তৈরির ক্ষেত্রে আসলে প্রফেশনাল ট্রেইনিংয়ের বিকল্প নেই। আর আমাদের দেশে এই প্রফেশনাল ট্রেইনিং ইনস্টিটিউট খুবই কম। সেই হাতে গোনা কোয়ালিটি ট্রেইনিং সেন্টারের মধ্যে ‘এস আর ড্রিম আইটি’ একটি।

এটি গত ২ বছরেরও অধিক সময়ে প্রায় চার হাজারেরও বেশি স্টুডেন্ট ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের ওপর প্রফেশনাল ট্রেনিং দেওয়ার পাশাপাশি লাইফটাইম সাপোর্ট অফার করে আসছে। যাতে করে তাদের স্টুডেন্টরা কাজ করার সময় কোন সমস্যার সম্মুখীন হলে এক্সপার্টদের সাহায্য নিয়ে এগিয়ে যেতে পারে। আর এই ট্রেইনিং দিচ্ছেন শুভ আহমেদ, যিনি নিজে বাংলাদেশ সরকারের লার্নিং প্রজেক্টের ট্রেইনার এবং সিইও অব এস আর ড্রিম আইটি। উনার প্রত্যক্ষ এবং পরোক্ষ সাপোর্টে তাদের স্টুডেন্টরা গত এক বছরে প্রায় ৩ লাখেরও বেশি ডলার আয় করেছে।

প্রফেশনাল এবং কোয়ালিটি ট্রেইনিং এবং এক্সাপার্টদের আইটি সাপোর্ট; এই দুইয়ের মিশেলে আজকের এস আর ড্রিম আইটির স্টুডেন্টদের এত সাফল্য। তাদের রয়েছে নিজস্ব ওয়েব সাইট যেখানে নিয়মিত স্টুডেন্টরা নিজেদের হোমওয়ার্ক, নিজেদের লেকচারের পাশাপাশি ক্লাস রেকর্ডিং এবং লাইভ চ্যাট সাপোর্টও পেয়ে থাকে। প্রতিদিন ৪ জন ট্রেইনার দিচ্ছেন ১১ ঘণ্টা লাইভ সাপোর্ট!

প্রতিষ্ঠানটির প্রতিষ্ঠাতা শুভ আহমেদের ভিশনই হচ্ছে, স্বল্প খরচে লার্নিং এবং আর্নিং। এই লক্ষ্যেই উনি এগিয়ে চলেছেন প্রতিদিন। প্রায় চার হাজারেরও বেশি স্টুডেন্টদেরকে সাপোর্ট দেওয়ার পাশাপাশি উনার রয়েছে এক্সপার্ট টিম, যারা নিয়মিত উনার নেতৃত্বে কাজ করে চলেছে। উনার লক্ষ্য ভবিষ্যতে ডিজিতাল মার্কেটারদের একটা স্ট্রং নেটওয়ার্ক তৈরি করা। পাশপাশি এস আর ড্রিম আইটি এর প্রফেশনাল ডিজিটাল মার্কেটিং এজেন্সি চালু করা যেখানে তারই ট্রেইন করা স্টুডেন্টরা কাজ করবে অর্থাৎ ট্রেনিং এর পাশাপাশি কাজ করাও সুনিশ্চিত করা হবে।

বাংলাদেশ জার্নাল/আইএন

  • সর্বশেষ
  • পঠিত