ঢাকা, সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ১৩ আষাঢ় ১৪২৯ আপডেট : ৪ মিনিট আগে

টেক্সাসের স্কুলে হত্যাকাণ্ড

আতঙ্কিত শিক্ষার্থীরা পুলিশকে কল দিয়েও পাননি

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশ : ২৮ মে ২০২২, ১৭:১৪  
আপডেট :
 ২৮ মে ২০২২, ১৮:২০

আতঙ্কিত শিক্ষার্থীরা পুলিশকে কল দিয়েও পাননি
ছবি: এপি
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসে শ্রেণিকক্ষে হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে ভিন্ন এক তথ্য দিয়েছে অঙ্গরাজ্যটির জননিরাপত্তা বিভাগ, যা ঘটনাটিকে নতুন করে আবার আলোচনায় এনেছে। টেক্সাস কর্তৃপক্ষ মনে করে, এ হত্যাকাণ্ডের ক্ষতি আরও কমানো সম্ভব হতো যদি পুলিশ সময় মতো ঘটনাস্থলে উপস্থিত হতো।

কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে বার্তাসংস্থা রয়টার্সের খবরে বলা হয়, যে শ্রেণিকক্ষে এ হামলার ঘটনা ঘটেছে, সেখানে আতঙ্কিত শিক্ষার্থীরা কমপক্ষে ছয়বার ৯১১তে কল দিয়েছেন, যাতে পুলিশ এসে তাদের উদ্ধার করে। এ সময় বাইরেই অবস্থান করছিলেন পুলিশ সদস্যরা।

টেক্সাস কর্তৃপক্ষ শুক্রবার জানায়, অন্তত ১৯ জন পুলিশ কর্মকর্তার একটি দল টেক্সাসের শ্রেণীকক্ষের বাইরে হলওয়েতে প্রায় ৪৫ মিনিটের জন্য দাঁড়িয়ে ছিলেন, যেখানে বন্দুকধারী তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণির ১৯ ছাত্র এবং দুই শিক্ষককে হত্যা করেছিল।

টেক্সাসের জননিরাপত্তা বিভাগের পরিচালক স্টিভেন ম্যাকক্রো বলেন, মঙ্গলবার পুলিশ যখন স্কুলের হলওয়েতে ছিল, তখন ৯১১টি জরুরী কল দুটি সংলগ্ন শ্রেণিকক্ষের ভেতর থেকে আসে, যেখানে বন্দুকধারী ১৮ বছর বয়সী সালভাদর রামোস লুকিয়ে ছিল।

এক সংবাদ সম্মেলনে ম্যাকক্রো বলেন, ‘অবশ্যই, এটি সঠিক সিদ্ধান্ত ছিল না। এটা ছিল ভুল সিদ্ধান্ত (অপেক্ষা করা)। এর জন্য কোনও অজুহাত নেই।’ বাহিনীর দায়িত্বে থাকা পুলিশ প্রধান বিশ্বাস করেন যে, ঘটনাটি একটি ‘সক্রিয় শ্যুটার’ পরিস্থিতি থেকে ‘ঘিরে রাখা সন্দেহভাজন’ পরিস্থিতিতে পরিবর্তিত হয়েছে।

বাইরের রাস্তায় অভিভাবকরা পুলিশকে ক্লাশরুমে ঢুকে খুনিকে আটকাতে বা তাদেরকে স্কুলে প্রবেশ করতে দেয়ার জন্য অনুরোধ করছিলেন।

এ নিয়ে প্রকাশিত একটি ভিডিওতে দেখা গেছে, শিক্ষার্থীদের বাবা-মা হলুদ রঙের পুলিশ টেপ ভেঙে ফেলার চেষ্টা করছেন। তারা কর্মকর্তাদের স্কুলে প্রবেশ করার জন্য দাবি জানাচ্ছেন। শ্রেণিকক্ষে পুলিশ ঢুকতে কেন এত সময় লাগল তা নিয়ে এখন প্রশ্ন উঠছে।

বাংলাদেশ জার্নাল/টিটি

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত