রাজস্থান রাজ্যে দরজি হত্যার ঘটনায় আজমির শরিফের প্রধানের নিন্দা

প্রকাশ : ২৯ জুন ২০২২, ২০:৩১ | অনলাইন সংস্করণ

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ভারতে তালেবানি মানসকিতা’মাথাচাড়া দিলে তা কখনো বরদাশত করা হবে না বলে হুশিয়ার করেছেন আজমির শরিফের প্রধান দেয়ান জয়নুল আবেদীন আলী খান।  ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদনে এই তথ্য পাওয়া গেছে। 
 
এসময় রাজস্থান রাজ্যের উদয়পুরে দরজিকে হত্যার নিন্দা জানান আজমির শরিফের প্রধান। 

তিনি বলেন, দেশে ‘তালেবানি মানসকিতা’মাথাচাড়া দিলে তা কখনো বরদাশত করা হবে না। তিনি আরও বলেছেন, কোনো ধর্মই মানবতার বিরুদ্ধে সহিংসতা সমর্থন করে না।

গতকাল উদয়পুরে জনাকীর্ণ বাজারের ভেতর কানহাইয়া লালকে ধারাল অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে সন্ত্রাসীরা। সেই ঘটনার ভিডিও ধারণ করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দিয়েছেন হামলাকারীরা। পুলিশ বলছে, হামলাকারীরা ওই দরজির শিরশ্ছেদ করার চেষ্টা করেছিলেন, কিন্তু পারেননি। 

ভারতীয় পুলিশের দেয়া তথ্যমতে, মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.) সম্পর্কে অবমাননাকর মন্তব্যের জেরে সাময়িক বরখাস্ত বিজেপির মুখপাত্র নূপুর শর্মাকে সমর্থন করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্ট দিয়েছিলেন দরজি কানহাইয়া লাল। এরপর থেকে হুমকি পাচ্ছিলেন তিনি।

কানহাইয়া লালকে হত্যার নিন্দা জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন আজমির শরিফের প্রধান বলেন, মানবতার বিরুদ্ধে সহিংসতা কোনো ধর্মই সমর্থন করে না, বিশেষ করে ইসলাম ধর্মে। ইসলামে যা শিক্ষা দেওয়া হয়, তা শান্তির উৎস হিসেবে কাজ করে। ইন্টারনেটে একটি রোমহর্ষক ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে। তাতে দেখা যায়, নিরীহ এক ব্যক্তির ওপর পাশবিক হামলা চালাচ্ছেন নীতিবিবর্জিত কিছু মানুষ। ইসলামে একে শাস্তিযোগ্য পাপ মনে করা হয়। 

জয়নুল আবেদীন খান আরও বলেন, অভিযুক্ত হামলাকারীরা এমন কোনো চরমপন্থী গোষ্ঠীর অংশ, যারা সহিংসতাকেই সমাধানের একমাত্র পথ মনে করেন।

তিনি বলেন, আমি কঠোরভাবে এসব কাজে নিরুৎসাহিত করছি এবং তাদের (অভিযুক্তদের) বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি। ভারতের মুসলিমরা কখনো আমাদের মাতৃভূমিতে তালেবানি মানসকিতা মাথাচাড়া দিয়ে উঠতে দেবে না। 

বাংলাদেশ জার্নাল/এমএম