ঢাকা, শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৩ আশ্বিন ১৪২৮ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে

তিন ফরম্যাটেই সিরিজ জয় টাইগারদের

  স্পোর্টস ডেস্ক

প্রকাশ : ২৫ জুলাই ২০২১, ২০:০৮  
আপডেট :
 ২৫ জুলাই ২০২১, ২০:১৫

তিন ফরম্যাটেই সিরিজ জয় টাইগারদের
স্পোর্টস ডেস্ক

জিম্বাবুয়ের দেওয়া ১৯৪ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও শামীম হোসেন পাটোয়ারির ব্যাটিং নৈপুণ্যে নির্ধারিত ২০ ওভারের আগে ৫ উকেটের জয় পায় বাংলাদেশ। যার ফলে টেস্ট ও ওয়ানডের পর টি-টোয়ন্টি সিরিজও নিজেদের করে নিলো টাইগাররা।

হারারেতে রোববার টস জিতে ঘরের মাঠে টি-টোয়েন্টিতে সর্বোচ্চ ১৯৩ রান করে জিম্বাবুয়ে। এই রান তাড়া করতে নেমে শুরুটা ভালো করতে পারেনি বাংলাদেশ। ম্যাচের তৃতীয় ওভারে মুজারাবানি বোলিংয়ে আসেন। এসেই ফেরান ওপেনার নাঈম শেখকে। বাঁহাতি ব্যাটসম্যান মিড অন দিয়ে বল উড়াতে চেয়েছিলেন। কিন্তু টাইমিংয়ে গড়বড় করে সহজ ক্যাচ দেন।

এরপর ক্রিজে এসে ভালো কিছু করার আভাষ দেয় বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। কিন্তু ইনিংস বড় করতে ব্যর্থ ছিলো সাকিব। ১৩ বলে ২৫ রান করে সাকিব যখন প্যাভিলিয়নে ফিরে যায় তখন বাংলাদেশ রান ৭০। লুক জংওয়েকে দুই ছক্কা মেরে বড় কিছুর আশা দেখাচ্ছিলেন সাকিব আল হাসান। কিন্তু তৃতীয় ছক্কা হাঁকাতে গিয়ে বিপদ ডেকে আনলেন। লং অনে ক্যাচ দিয়ে সাকিব ১৩ বলে ২৫ রান করে ফিরলেন।

তৃতীয় উইকেটে জুটি বাঁধেন মাহমুদউল্লাহ ও সৌম্য। ব্যাট হাতে যখন টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানরা ব্যর্থ তখন মাহমুদউল্লাহর সঙ্গে ৩৬ বলে ৬৩ রানের জুটি গড়ে জিম্বাবুয়েকে দারুণ জবাব দিচ্ছিলেন সৌম্য। এ সময়ে সৌম্য ফিফটি তুলে নিয়ে ইনিংস বড় করছিলেন। কিন্তু দ্রুত রান তোলার তাড়ায় বাঁহাতি ব্যাটসম্যান উইকেট হারালেন।

লুক জংওয়েকে উড়াতে গিয়ে হাওয়ায় ক্যাচ ভাসান। লং অফে ক্যাচ নেন মুসাকান্দা। ক্যারিয়ার সর্বোচ্চ ৬৮ রান করে সৌম্য ফেরেন সাজঘরে। ৪৯ বলে ৯ চার ও ১ ছক্কা হাঁকান বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। নতুন ব্যাটসম্যান আফিফ ছক্কায় উড়িয়ে রানের খাতা খুলেন। এরপর ওয়েলিংটন মাসাকাদজাকেও ছক্কা হাঁকান তিনি। কিন্তু তার ইনিংসটি থেমে যায় ১৪ রানে।

শেষের দিকে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও শামীম হোসেন পাটোয়ারির ঝড়ো ব্যাটিংয়ে করে জয় দিয়েই জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে পূর্ণাঙ্গ সিরিজ শেষ করলো বাংলাদেশ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

বাংলাদেশ: ১৯৪/৫ ( ১৯.২ ওভার) টার্গেট:১৯৪

বাংলাদেশ একাদশ: মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (অধিনায়ক), নাঈম শেখ, সৌম্য সরকার, সাকিব আল হাসান, কাজী নুরুল হাসান সোহান, আফিফ হোসেন ধ্রুব, শামীম হোসেন পাটোয়ারি, নাসুম আহমেদ, সাইফউদ্দিন, তাসকিন আহমেদ ও শরিফুল ইসলাম।

জিম্বাবুয়ে একাদশ: সিকান্দার রাজা (অধিনায়ক), ওয়েসলি মাধেভেরে, তাদিওয়ানাশে মারুমানি, রেগিস চাকাবা, ডিয়ন মায়ার্স, মিল্টন শুম্বা, রায়ান বার্ল, লুক জংউই, ওয়েলিংটন মাসাকাদজা, টেন্ডাই চাতারা, ব্লেসিং মুজারাবানি।

বাংলাদেশ জার্নাল/আইএইচ/ওআই

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত