ঢাকা, বুধবার, ১০ আগস্ট ২০২২, ২৬ শ্রাবণ ১৪২৯ আপডেট : ৮ মিনিট আগে

ক্রিকেটাররা সুস্থ, তবুও শঙ্কায় ম্যাচ

  স্পোর্টস ডেস্ক

প্রকাশ : ০২ জুলাই ২০২২, ১৩:২৯

ক্রিকেটাররা সুস্থ, তবুও শঙ্কায় ম্যাচ
ছবি- সংগৃহীত
স্পোর্টস ডেস্ক

ভয়ংকর এক যাত্রায় বিশালাকার আটলান্টিক পাড়িয়ে দিয়েছেন বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা। এমনিতেই আটলান্টিকের ঢেউ বিশাল, সাথে আরও ছিলো সাইক্লোনের প্রভাব। দুইয়ে মিলে আটলান্টিক যেন ধারণ করেছিলো রুদ্রমূর্তি। ঢেউয়ের তীব্রতা যেন ক্রিকেটারদের হাড়ে হাড়ে বুঝিয়ে দিয়েছে নীল জলরাশির বিশাল আটলান্টিকের ভয়াবহতা আর নির্মমতা।

সমুদ্রের ভয়ের সাথে ক্রিকেটারদের আরও বেশি শারীরিকভাবে দুর্বল করে তোলে মোশন সিকনেসের প্রভাব। নুরুল হাসান সোহান, শরিফুল ইসলাম, নাসুম আহমেদ, লজিস্টিক ম্যানেজার নাফিস ইকবাল অসুস্থ হয়ে পড়েন একটু বেশিই। তবে আটলান্টিকের প্রতিকূলতা জয় করে শেষমেশ প্রথম দুই টি-টোয়েন্টির ভেন্যু ডমিনিকায় পৌঁছেছেন ক্রিকেটাররা।

সেখানে পৌঁছে মাত্র একদিন সময় পেয়েছেন ক্রিকেটাররা। প্রথমে শঙ্কা হিলো সুস্থ হয়ে মাঠে নামতে পারবেন তো টাইগাররা। তবে কেটে গেছে সেই শঙ্কা। সুথ হয়েছেন ক্রিকেটাররা।

বাংলাদেশের টিভি ধারাভাষ্যকার জাতীয় দলের সাবেক তারকা আতহার আলী খান কাল শুক্রবার (১ জুলাই) রাতেই পেসার শরিফুলের সাথে একটি সেলফি নিজের ফেসবুক একাউন্ট থেকে পোস্ট করে জানিয়ে দিয়েছেন, সুস্থ আছেন শরিফুল।

এদিকে ক্রিকেটাররা তো সুস্থ হয়ে মাঠে নামতে প্রস্তুত, তবুও শঙ্কা জেগেছে আজ রাত সাড়ে ১১ টায় হতে যাওয়া প্রথম টি-টোয়েন্টি মাঠে গড়ানো নিয়েই। বাঁধ সেধে বসেছে ডমিনিকার আবহাওয়া। সাইক্লোনের প্রভাব এখনও কাটেনি দ্বীপরাষ্ট্রটির উপর থেকে। বৃষ্টির কারণে ম্যাচের আগের শেষদিনের অনুশীলনেও নামতে পারেননি টাইগাররা।

তবে অনুশীলন না হলেও সেটা নিয়ে আফসোস নেই বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের। ম্যাচ আগের সংবাদ সম্মেলনে তিনি জানান, আজকের কন্ডিশন আমাদের (অনুশীলনের) অনুমতি দেয়নি। কারণ বৃষ্টি পড়েছে। গতকাল (বৃহস্পতিবার) আমরা ভ্রমণ করে এসেছি। আমার মনে হয় যে তার আগে আমরা সেন্ট লুয়িয়াতে ফুটবল খেলে উপভোগ করেছি, আর ৪০ মিনিটের ফিল্ডিং সেশন করেছি।

ম্যাচের আগের দিন যেমন বৃষ্টি ঝরেছে, তেমনই সম্ভাবনা রয়েছে আজকের ম্যাচের দিন নিয়েও। শুধু বৃষ্টির সম্ভাবনাই নয়, ডমিনিকার উইন্ডসর পার্কের পুরো ম্যাচই ভেস্তে যেতে পারে বৃষ্টির কবলে পড়ে।

তবে ম্যাচ মাঠে গড়াক বা না গড়াক সেই আশায় বসে না থেকে নিজেদের প্রস্তুতির ব্যাপারে বেশ শক্তপোক্ত কথাই শোনালেন টাইগার অধিনায়ক।

মাহমুদুল্লাহ বলে, আমার মনে হয় মানসিকভাবে আমাদের ওভাবে প্রস্তুতি নিতে হবে। আমি এটা ওদেরও বলছিলাম যে মানসিকভাবে এবং ম্যাচ পরিস্থিতিতে যে যতটা এগিয়ে থাকবে, বিশেষ করে আমাদের ক্ষেত্রে এটা বলছি, যেনো মানসিকভাবে তৈরি থাকতে পারি সবাই। ম্যাচ খেলার জন্য আমাদের সম্ভাব্য এটাই সেরা উপায়।

এদিকে টেস্ট সিরিজে ২-০ ব্যবধানে হার দিয়ে শুর করলেও টি-টোয়েন্টিতে ঘুরে দাঁড়ানোর আশাই করছেন বাংলাদশের অধিনায়ক, সাদা বল আর লাল বল আলাদা। এখানে ভিন্ন বলের খেলা। লাল বলের সিরিজকে এখন আমরা সামনে আনছি না, টি-টোয়েন্টিতেই মনোযোগ রাখার চেষ্টা করছি। একইসাথে আমরা বিশ্বকাপেরও প্রস্তুতি নিচ্ছি। ওয়েস্ট ইন্ডিজকে তাদের ঘরের মাঠে মোকাবেলা করতে মুখিয়ে আছি।

বাংলাদেশ জার্নাল/এসএস

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত