ঢাকা, শনিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২২, ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ আপডেট : ২ মিনিট আগে
শিরোনাম

আর্জেন্টিনায় খেলার মাঠে সংঘাত, দর্শকের মৃত্যু

  ক্রীড়া ডেস্ক

প্রকাশ : ০৭ অক্টোবর ২০২২, ২১:০১

আর্জেন্টিনায় খেলার মাঠে সংঘাত, দর্শকের মৃত্যু
কাঁদানে গ্যাসের ধোঁয়া থেকে বাঁচার চেষ্টা। ছবি: সংগৃহীত।

ক্রীড়া ডেস্ক

ইন্দোনেশিয়ায় ফুটবল মাঠে হাঙ্গামায় প্রায় ১৭৪ জনের মৃত্যুর রেশ এখনো কাটেনি। তারই মধ্যে ফের একবার ফুটবল মাঠের দাঙ্গা সামনে চলে এলো। যাতে আপাতত মৃত্যু হয়েছে একজনের। ঘটনাটি আর্জেন্টিনার ফুটবল লীগের একটি ম্যাচের।

আর্জেন্টাইন লিগে ডিয়েগো ম্যারাডোনার স্মৃতিবিজড়িত ক্লাব বোকা জুনিয়র্স মুখোমুখি হয়েছিল জিমনাসিয়ার। তবে দর্শকদের বিশৃঙ্খলায় একপর্যায়ে খেলা থামিয়ে দিতে বাধ্য হন রেফারি হার্নান মাসতার্নগেলো। স্টেডিয়ামের বাইরে তৈরি হওয়া বিরূপ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে কাঁদানে গ্যাসেরম শেল ছোড়ে পুলিশ।

তবে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের জন্য যথেষ্ট পরিমাণ নিরাপত্তাকর্মী সেখানে উপস্থিত না থাকায় বিশৃঙ্খলা আরও বেড়ে যায়। কর্তৃপক্ষ বলছে, গ্যালারি দর্শকে টইটম্বুর হওয়ার পরও স্থানীয় দল জিমনাসিয়ার সমর্থকেরা জোর করে মাঠে প্রবেশের চেষ্টা করেন। তাদের নিবৃত্ত করতে পুলিশ রাবার বুলেট এবং কাঁদানে গ্যাসের শেল ছোড়ে।

বুয়েনস এইরেসের নিরাপত্তামন্ত্রী সের্হিও বেরোনি বলেছেন, দুর্ভাগ্যজনকভাবে এ ঘটনায় একজন মারা গেছেন। ওই ব্যক্তি হৃদ্‌যন্ত্রের সমস্যা নিয়ে হাসপাতালে যাওয়ার পর সেখানেই মৃত্যুবরণ করেন। যদিও নিহত সেই ব্যক্তির পরিচয় নিয়ে বিস্তারিত কিছু বলেননি বেরোনি। ছবিতে দেখা যায়, কাঁদানে গ্যাসে পুরো স্টেডিয়াম ছেয়ে গিয়েছিল সে সময়। ধোঁয়ার কারণে অস্বস্তিতে খেলোয়াড় এবং সমর্থকদের মুখ ঢাকতেও দেখা গেছে।

এ ঘটনায় হতাশা ও নিন্দা জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছে আর্জেন্টাইন ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন। টুইটারে দেয়া বার্তায় তারা লিখেছে, এএফএ এই ধরনের ঘটনার নিন্দা জানাচ্ছে। পাশাপাশি ফুটবলের চেতনাকে কলঙ্কিত করার মতো এ ধরনের ঘটনা নির্মূলে কাজ করে যাওয়ার প্রতিশ্রুতি দিচ্ছে। আর্জেন্টিনার ফুটবলে এমন সংঘাতের দৃশ্য অবশ্য প্রথম নয়। বারবার তৈরি হওয়া সংঘাতপূর্ণ পরিস্থিতি এড়াতে ২০১৩ সাল থেকে লা প্লাটার হুয়ান কারেমেলো জেরিলো স্টেডিয়ামে অতিথি দলের সমর্থকদের নিষিদ্ধ করেছে বুয়েনস এইরেস কর্তৃপক্ষ। স্টেডিয়ামে খেলা দেখতে আসা সবাই ছিল জিমনাসিয়ার সমর্থক। এরপরও এড়ানো যায়নি এমন মর্মান্তিক ঘটনা।

পরিস্থিতির ভয়াবহতা সম্পর্কে বলতে গিয়ে জিমনাসিয়ার খেলোয়াড় লিওনার্দো মোরালেস বলেছেন, আমার ২ বছর বয়সী শিশু নিশ্বাস নিতে পারছিল না। আমরা স্ট্যান্ডে থাকা সব মানুষকে নিয়েই উদ্বিগ্ন ছিলাম। এটা স্রেফ পাগলামি। আমরা একটা সাধারণ ফুটবল ম্যাচই খেলছিলাম। আর সেটি কিনা এমন ভয়াবহ রূপ নিল।

বাংলাদেশ জার্নাল/এমএম

  • সর্বশেষ
  • পঠিত