ঢাকা, বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৫ মাঘ ১৪২৯ আপডেট : ৩৪ মিনিট আগে
শিরোনাম

রক্ষণশীল কাতারের মাঠে নারী রেফারিংয়ে ইতিহাস

  ক্রীড়া ডেস্ক

প্রকাশ : ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ১৯:৩১  
আপডেট :
 ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ১৯:৪৩

রক্ষণশীল কাতারের মাঠে নারী রেফারিংয়ে ইতিহাস
রক্ষণশীল কাতারের মাঠে নারী রেফারিংয়ে ইতিহাস । ছবি: ইন্টারনেট
ক্রীড়া ডেস্ক

কাতারে নারীদের পোশাক নিয়ে নানা বিধিনিষেধ রয়েছে। বিশ্বকাপ দেখতে আসা নারী সমর্থকদের সতর্ক করা হয়েছে পোশাক নিয়ে। খোলামেলা পোশাক পরতে নিষেধ করা হয়েছে। সেই কাতারেই ছেলেদের ফুটবল ম্যাচ পরিচালনা করলেন নারী রেফারি স্টেফানি ফ্রেপার্ট। তাকে সহায়তা করেন ব্রাজিলের সহকারী রেফারি নুজা বাক এবং মেক্সিকোর কারেন ডিয়াজ মেডিনা।

কাতারের আল বায়াত স্টেডিয়ামে জার্মানি বনাম কোস্টারিকা ম্যাচে স্টেফানি বাঁশি বাজিয়ে খেলা শুরুর নির্দেশ দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই তৈরি হল ইতিহাস। পুরুষদের ফুটবল বিশ্বকাপে প্রথম ম্যাচ পরিচালনা করলেন কোরো নারী রেফারি। ফ্রান্সের ৩৮ বছরের নারী রেফারি স্টেফানি নজির গড়লেন।

বিশ্বকাপ ফুটবলের ৯২ বছরের ইতিহাসে এমন ঘটনা আগে ঘটেনি। পুরুষ রেফারি নারীদের বিশ্বকাপ ফুটবলের ম্যাচ খেলিয়েছেন। কিন্তু কোনো নারী রেফারি কখনো পুরুষদের বিশ্বকাপের ম্যাচ খেলাননি। যদিও নারী রেফারিরা এর আগে পুরুষদের ম্যাচ পরিচালনা করেছেন।

স্টেফানিই এর আগে ছেলেদের চ্যাম্পিয়ন্স লিগ এবং বিশ্বকাপের বাছাই পর্বের ম্যাচ পরিচালনা করেছিলেন। এফএ কাপের ম্যাচে দেখা গিয়েছিল নারী রেফারি রেবেকা ওয়েলচকে। কিন্তু ছেলেদের বিশ্বকাপে কখনও মহিলা রেফারিকে ম্যাচ পরিচালনা করতে দেখা যায়নি। সেই ঘটনাই ঘটল বৃহস্পতিবার রাতে। সেটা আবার কাতারের মাঠে। যেখানে নারীদের উপর বিভিন্ন ধরনের নিষেধাজ্ঞা রয়েছে।

উল্লেখ্য, ফ্রান্সে জন্ম ফ্রেপপার্টের। ফুটবল খেলা ও রেফারিংয়ের প্রতি ছোট থেকেই আকর্ষণ। মাত্র ১৩ বছর বয়সেই ফুটবল জগতে প্রবেশ তার। ১৮ বছর বয়সেই অনূর্ধ্ব ১৯ জাতীয় গেমে রেফারিংয়ের দায়িত্ব পান। চলতি মৌসুমে ফ্রেঞ্চ লিগে ১৬টি ম্য়াচ পরিচালনার দায়িত্বে ছিলেন। ২০২০ সালের চ্যাম্পিয়ন্স লিগে প্রথম নারী রেফারি হিসেবে দেখা যায় স্টেফানি ফ্রেপপার্টকে। তার ঝুলিতে রয়েছে IFFHS কর্তৃক প্রাপ্ত সেরা রেফারির (২০১৯,২০২০,২০২১) খেতাব।

বাংলাদেশ জার্নাল/আরআই

  • সর্বশেষ
  • পঠিত